শনিবার, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২৪

বড়লেখায় গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু

যা যা মিস করেছেন

তিমির বনিক,মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:

মৌলভীবাজারের বড়লেখায় খাদিজা বেগম (২১) নামে এক গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (৯ জানুয়ারি) সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

খাদিজা উপজেলার মুর্শিবাদকুরা গ্রামের জুয়েল আহমদের স্ত্রী। স্বামীর দাবি, খাদিজা বেগম গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফ্যানের সাথে ঝুঁলে আত্মহত্যা করেছেন। তবে এলাকায় সাধারণ মানুষের মনে এ মৃত্যু নিয়ে রহস্য দেখা দিয়েছে।

জানা গেছে, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে মুমূর্ষু অবস্থায় স্বামীর বাড়ির লোকজন গৃহবধু খাদিজা বেগমকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। তখন কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে। স্বামীর বাড়ির লোকজনের দাবি খাদিজা বেগম আত্মহত্যা করেছেন। তবে তারা আত্মহত্যার কারণ নিশ্চিত করতে পারেননি। প্রতিবেশিদের একটি সূত্র জানায়, পারিবারিক কলহ ও স্বামীসহ শ্বশুড়বাড়ির লোকজনের নানা নির্যাতনে কারনে অভিমান করে গৃহবধু খাদিজা বেগম আত্মহত্যা করেছেন। তার মৃত্যু নিয়ে এলাকায় রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে।

বড়লেখার থানার এসআই আতাউর রহমান জানান, সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরির পর ময়নাতদেন্তর জন্য লাশ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। স্বামীর বাড়ির লোকজন বলেছেন, সবার অগোচরে গৃহবধু খাদিজা বেগম গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। এব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর মৃত্যুর প্রকৃত কারণ নিশ্চিত করা যাবে।

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ