বুধবার, জুন ১২, ২০২৪

‘রেল যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে রামসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনের উদ্বোধন’ -রেলমন্ত্রী

যা যা মিস করেছেন

আবু নাসের সিদ্দিক তুহিন। –

রেলপথ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী অ্যাড. মো. নূরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, সারাদেশের রেল যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরিকল্পনার অংশ হিসেবে রামসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনটি আবারও চালু করা হলো। এরফলে উত্তরাঞ্চলের মানুষের যোগাযোগের সুবিধা বাড়বে।
আজ মঙ্গলবার ২৯ আগস্ট গাইবান্ধার বোনারপাড়া রেলওয়ে স্টেশন চত্বরে রামসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনটি পুনরায় চালুকরণের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, গাইবান্ধা জেলার সাঘাটা উপজেলার বোনারপাড়া থেকে রংপুর, দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও, পঞ্চগড়সহ উত্তরাঞ্চলের ৮ জেলার বিকল্প যোগাযোগ ব্যবস্থা তেমন ভালো না । এই ট্রেনটি এ অঞ্চলের মানুষের জন্য যাতায়াত ও মালামাল পরিবহন সহ অন্যান্য সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধি করবেই ।
রংপুর বিভাগের আট জেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমুহ দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের অধীনে উল্লেখ করে রেলমন্ত্রী বলেন, নানা কারণে এ অঞ্চলের স্কুল-কলেজ শিক্ষকদের প্রায়শই দিনাজপুর যেতে হয়। এক্ষেত্রে ট্রেনটির গুরুত্ব অপরিসীম হবে । ট্রেনটি সকালে গাইবান্ধার বোনারপাড়া থেকে রওনা দিয়ে মাত্র সাড়ে চার ঘণ্টায় দিনাজপুরে পৌঁছাবে। ট্রেনটি চালু হওয়ায় যেমন সময় কম লাগবে তেমনি ভাড়াও সাশ্রয় হবে।
রামসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতীয় সংসদের হুইপ মাহাবুব আরা বেগম গিনি এমপি এবং সাঘাটা-ফুলছড়ি আসনের সংসদ সদস্য মাহমুদ হাসান রিপন। সাঘাটা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অ্যাড. এস.এম শামশীল আরেফিন টিটুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নাছিরুল আলম স্বপনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, ফুলছড়ি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জিএম সেলিম পারভেজ, সাঘাটা উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. হায়দার আলীসহ জেলা ও উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দসহ রেলওয়ের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা।
পরে রেলমন্ত্রী অ্যাড. মো. নূরুল ইসলাম সুজন ট্রেন পরিচালকের কামড়া থেকে বাঁশি বাজিয়ে এবং সবুজ পতাকা উড়িয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে রামসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনটির উদ্বোধন করেন। দুপুর আড়াইটায় তিনি নলডাঙ্গা রেলওয়ে স্টেশন আধুনিকায়ন কাজের উদ্বোধন করেন।
উল্লেখ্য যে , ইঞ্জিন-বগি ও লোকবলের সংকট দেখিয়ে ২০১৩ সালে রামসাগর এক্সপ্রেস নামের ট্রেনটি বন্ধ করে দেয় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। গাইবান্ধার যাত্রীরা যেন সহজে রংপুর ও দিনাজপুরে যাতায়াত করতে পারেন সেজন্য ২০১০ সালে এ ট্রেন চালু করা হয়েছিল। গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার বোনারপাড়া থেকে দিনাজপুর রেলওয়ে স্টেশন পর্যন্ত চলাচলকারী ট্রেনটি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়েন এ রুটের যাত্রীরা। তাদের দাবির মুখে দীর্ঘ ১১ বছর পর ফের চালু হল রামসাগর এক্সপ্রেস। তবে এবার আর দিনাজপুর পর্যন্ত নয়, নতুন করে চালু হওয়া রামসাগর এক্সপ্রেস এখন চলবে পঞ্চগড় পর্যন্ত। পঞ্চগড়ের বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম রেলওয়ে স্টেশন পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে এ ট্রেনের রুট।
এর আগে রামসাগর ট্রেনের রুট বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম রেলওয়ে স্টেশন পর্যন্ত বর্ধিত করে লালমনিরহাট বিভাগীয় রেলওয়ে ম্যানেজারের প্রস্তাবিত সময়সূচী অনুযায়ী পরিচালনার জন্য অনুমোদন দেয় রেলপথ মন্ত্রণালয়। নতুন সময়সূচী অনুযায়ী, ভোর সাড়ে ৫টায় বোনারপাড়া থেকে যাত্রা করে দুপুর ২টা ৫০ মিনিটে বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম রেলওয়ে স্টেশনে পৌঁছবে রামসাগর এক্সপ্রেস। ফিরতি যাত্রায় বিকাল ৫টা ২০ মিনিটে সিরাজুল ইসলাম রেলস্টেশন থেকে রওনা হয়ে রাত ১টায় বোনারপাড়া পৌঁছবে ট্রেনটি।

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ