মঙ্গলবার, জুন ১৮, ২০২৪

দুর্গাপুরে চুরি মামলার ৭ দিন পার হলেও মূলহোতা আলাল এখনো গ্রেফতার হয়নি

যা যা মিস করেছেন

দুর্গাপুর (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি –

নেত্রকোনার দুর্গাপুরে চুরি মামলার ৭ দিন পার হলেও ভাঙ্গারী ব্যবসায়ী আলাল উদ্দিন (৫০) কে এখনো গ্রেফতার হয়নি। গত ১৮ মে এমদাদুল হক বাদী হয়ে ৩ জনকে অভিযুক্ত করে থানায় চুরির মামলা করেন।

মামলার অন্য দুই আসামী সোহাগ ও শাকিব গ্রেফতার হলেও চোরকারবারীর মূলহোতা আলাল এখনো গ্রেফতার হয়নি। অভিযোগ রয়েছে, আলাল প্রকাশ্যে ঘুরাফেরা করলেও তাঁকে গ্রেফতার করছে না পুলিশ।

মামলা সূত্রে জানা যায়,এমদাদুল হক রাজমিস্ত্রির কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে। সে দুর্গাপুর পৌরসভার বুরঙ্গা গ্রামের নুরু মিয়ার বাড়িতে গৃহ নির্মাণের কাজ করছিলো। গত ১৬ মে কাজ শেষ করে কাজে ব্যবহৃত সকল জিনিসপত্র নুরু মিয়ার বাসায় রেখে চলে যায়।

পরদিন কাজের জন্য নুরু মিয়ার বাড়িতে গেলে এমদাদুল দেখতে পায়, কাজে ব্যবহৃত সকল জিনিসপত্র চুরি হয়ে গেছে। পরবর্তীতে ১৭ মে চুরি যাওয়া মালামাল নিয়েছে এমন সন্দেহে একজনকে আটক করলে, ভাঙ্গারী ব্যবসায়ি আলাল মিয়ার দোকানে বিক্রি করেছে বলে জানায় চোর চক্রের সদস্য সোহাগ ও তার সহযোগী সাকিব।

পরে তাঁদের দেয়া তথ্যমতে আলাল ভাঙ্গারীর দোকান থেকে ওই মালামাল সহ অন্যান্য চুরি যাওয়া মালামাল উদ্ধার করা হয়। স্থানীয়রা জানায়,মাদক সেবনের টাকার জন্য এসব মালামাল চুরি করে মাদকসেবী কিশোররা। ওই কিশোরদরে কাছ থেকে সুযোগ বুঝে এসব মালামাল কম দামে কিনে নেয় আলাল ভাঙ্গারী।

আলাল মিয়া প্রথমে এলাকায় টোঁটা কাপড়ের ব্যবসা ও পরে ভাঙ্গারীর ব্যবসা করে অল্পদিনেই কোটিপতি বনে যায়। চোরাই মালামাল কেনা-বেচা করার জন্য তাঁর বিরুদ্ধে অসংখ্য অভিযোগ রয়েছে।

এ বিষয়ে বেশ কয়েকবার দেন-দরবার হলেও তার অভ্যাসের কোন পরিবর্তন হয়নি। এ ব্যাপারে দুর্গাপুর থানার ওসি উত্তম চন্দ্র দেব জানান,চুরির বিষয়ে মামলা হয়েছে। আলাল কে ধরার জন্য চেষ্টা করা হচ্ছে।

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ