শনিবার, জুন ২২, ২০২৪

দ্বিতীয়বারের মত কলস প্রতিক নিয়ে জয়ী হলেন ইতি

যা যা মিস করেছেন

জেলা প্রতিনিধি, নড়াইল:

নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বেসরকারিভাবে দ্বিতীয়বারের মত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন ফারহানা ইয়াসমিন ইতি। তিনি দ্বিতীয়বারের মতো উপজেলা পরিষদে নির্বাচিত হলেন। ফারহানা ইয়াসমিন ইতি যুব মহিলা লীগের নড়াইল জেলা শাখার সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। 

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ফারহানা ইয়াসমিন ইতি (কলস) প্রতীকে ৩৬ হাজার ৭১৮ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মোছা. কাকলি বেগম (হাঁস) প্রতীকে পেয়েছেন ২৫ হাজার ১৩ ভোট। এছাড়া আরেক রাতে কণিকা ও ওছিউর (ফুটবল) প্রতিকে পেয়েছেন ১০২৯১ ভোট। এর আগে ইতি ২০১৯ সালে ৫ম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে (কলস) ১৮৬০০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছিলেন।

দ্বিতীয় ধাপে নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচন বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়াই শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (২১ মে) সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়, শেষ হয় বিকেল ৪টায়।

লোহাগড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে একে এম ফয়জুল হক রোক আনারস প্রতীকে ভোট ৩৯ হাজার ৬৫৬ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী শিকদার আব্দুর হান্নান রুনু হেলিকপ্টার প্রতীকে পেয়েছেন ২৬ হাজার ৬০০ ভোট।

এছাড়া নড়াইল জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মো. তারিকুল ইসলাম উজ্জ্বল মোটরসাইকেল প্রতীকে পেয়েছেন ৪ হাজার  ৪৬৫ ভোট, বীর মুত্তিযোদ্ধা মুন্সী নজরুল ইসলাম দোয়াত-কলম প্রতীকে পেয়েছেন  ৪ হাজার ৮৩ ভোট ও মো. আইয়ুব হোসেন ঘোড়া প্রতীকে ৩৮৭ ভোট পেয়েছেন।

ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) পদে খন্দকার মোস্তফা কামাল লিওন টিউবওয়েল প্রতীকে ২৩ হাজার ৮৭৮ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী রোমান রায়হান টিয়া পাখি প্রতীকে ২১ হাজার ৫৩৯ ভোট পেয়েছেন।

রাতে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জহুরুল ইসলাম বিজয়ী প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেন। তিনি বলেন, সোমবার বিকেলের পর থেকেই ব্যালট পেপার ছাড়া অন্যান্য নির্বাচনী সরঞ্জাম উপজেলার কেন্দ্রে কেন্দ্রে পৌঁছেছে। মঙ্গলবার সকালে ব্যালট পেপার পৌঁছেছে। সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়। শান্তিপূর্ণ পরিবেশে উপজেলা পরিষদের ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। এ নির্বাচনে উপজেলার কোথাও কোনো কেন্দ্রে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি বলে জানান তিনি।

এ উপজেলায় মোট ভোট কেন্দ্র ৯৭টি। মোট ভোটার সংখ্যা ২ লাখ ১০ হাজার ৭৬৭ জন। এরমধ্যে ভোট দিয়েছেন ৭৬ হাজার  ৮১৬ জন ভোটার। বাতিল হয়েছে ১ হাজার ৬২৫টি ভোট। ভোট পড়েছে শতকরা ৩৬ দশমিক ৪৫ শতাংশ।

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ