মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২৪

শার্শায় ভরা মৌসুমে শীতের সবজি ক্রেতাদের নাগালের বাইরে!

যা যা মিস করেছেন

আবু বকর ছিদ্দিক রনি, শার্শা প্রতিনিধিঃ

শীতের ভরা মৌসুমেও শার্শায় খুচরা বাজারে চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে শীতকালীন সবজি যা ক্রেতাদের নাগালের বাইরে।

এতে করে সাধারণ ক্রেতারা বাজারে গিয়ে হিমশিম খাচ্ছেন। পাইকারি বাজারে শীতকালীন সবজির দাম কমলেও খুচরা বাজারে এর প্রভাব নেই। গত কয়েকদিনের ব্যবধানে সব সবজির দাম বেড়েছে দুই গুন। যার ফলে বাধ্য হয়ে সবজি ক্রয় করতে হচ্ছে ক্রেতাদের।

সরকারি সংস্থার তদারকি না থাকায় খুচরা বাজারের ব্যবসায়ীদের বেশি মুনাফা করার কারণে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে অভিযোগ ক্রেতাদের।

শনিবার বাজার ঘুরে দেখা গেছে,সবজির সরবরাহ বেড়েছে তবে কমেনি দাম।বাজারে বেগুন ৭০ টাকা, নতুন আলু ৬৫, পুরানো আলু ৭০ টাকা,মিষ্টি কুমড়া ৪০ টাকা,শীম ৭০,রাউ ৪০ পিস প্রতি,ফুলকপি ৬০, বাধা কপি ৩০,কাঁচা মরিচ ১০০, টমেটা ৬০, মাটি আলু ৭০, পেঁয়াজের কালি ৫০,রসুন ২৫০। এছাড়া লাল শাকসহ সবধরনের শাক আটি ১৫ থেকে ২০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

ভারতে রপ্তানি বন্ধের খবরে বেড়ে যাওয়া পেঁয়াজের দাম কয়েকদিন আগে ৯০ টাকা বিক্রি হলেও এখন তা বিক্রি হচ্ছে ১০০/১১০ টাকা।

সবজি বাজার করতে আসা ক্রেতা রুপালি খাতুন জানান,তরকারি ক্রয় করার মত নেই।এখন চলছে শীতের মৌসুম। বাজারে সবজি সরবরাহ রয়েছে অনেক। অথচ দামের সময় কম নেই। কয়েকদিন আগে যে বেগুন ৫০ টাকায় কিনেছি তা এখন ৭০ টাকায় কিনলাম।

বাগআঁচড়া বাজারের বেত্রাবতী ভেজিটেবলসের স্বত্বাধিকারী মেহেদী হাসান জানান,আমরা আড়ৎ থেকে যে ভাবে ক্রয় করি সেইভাবে বিক্রি করি।যেমন বেগুন আমরা আড়ৎ থেকে ৬০ টাকা কেজি কিনে ৭০ টাকা বিক্রি করছি।এতে করে দোকান ভাড়া সহ নানান খরচ দিয়ে তাই চলা দায় হয়ে যাচ্ছে।

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ