বুধবার, জুন ১৯, ২০২৪

খিচুড়ি পাকাতে বিদেশ যাওয়া, এটা নিয়ে হৈচৈ করার কি আছে?

যা যা মিস করেছেন

স্কুল শিক্ষার্থীদের জন্য সবজি বা ডিম খিচুড়ি রান্না করা ও সরবরাহের কাজে প্রশিক্ষণ নিতে বিদেশ যাচ্ছেন বেশ কিছু কর্মকর্তা। প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্কুল ফিডিং কার্যক্রমের আওতায় এসব কর্মকর্তারা বিদেশ সফর করবেন বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন বলেছেন, আমাদের খিচুড়ি পাকাতে বিদেশে যেতে হবে? মিড ডে মিল বা ম্যানেজম্যান্ট শেখার জন্য উচ্চতর প্রশিক্ষণের প্রয়োজন আছে। প্রত্যেকেরই সিনিয়রদের কাছে কিছু শেখার আছে। এজন্য কিছু টাকা ধরা আছে। এটা নিয়ে হৈচৈ করার কি আছে?

বুধবার সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, স্কুলে দুপুরে যাতে বাচ্ছাদের ধরে রাখতে পারি সেজন্য আমরা স্কুলে খাবার দেয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। দুপুরে খিচুড়ি যে দেব, কি সিস্টেমে দিতে হবে? ১৯৪১ সালে কেরোলায় এটি চালু করা হয়। আমরা এটি চালু করার জন্য নিজে তাদের এ প্রোগ্রাম দেখেছি। এ জিনিসগুলো দেখার কারণে আমি এটা পাইলটিং করেছি।

তিনি বলেন, তারা কিভাবে চালায়, সরকার চালায় নাকি অন্যকেউ? এসব বিষয়ে বাইরে গিয়ে অভিজ্ঞতা নেয়া দরকার। বিষয়টি নিয়ে গণমাধ্যমে কথা বলায় এসময় বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভীরও সমালোচনাও করেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী।

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ