শুক্রবার, এপ্রিল ৫, ২০২৪

গাইবান্ধায় জাল টাকায় বই কিনতে ধরা টাঙ্গাইলের প্রতারক সাদ্দাম

যা যা মিস করেছেন

মনিরুজ্জামান খান গাইবান্ধা: গাইবান্ধায় জাল টাকার নিয়ে বইয়ের দোকান থেকে বইসহ কলম খাতা কিনতে গেলে  সাদ্দাম হোসেন নামের এক প্রতারক চক্রের সদস্য আটক হয় সাধারণ জনতার কাছে, পরে পুলিশ খবর দিয়ে তাদের কাছে সোপর্দ করা হয়।

মঙ্গলবার ১৩ (ফেব্রুয়ারি) গাইবান্ধা শহরের নিউমার্কেট এলাকায় দুটি বইয়ের দোকান ও ১টি ইলেকট্রিক্যাল দোকানে  ১ হাজার টাকা দিয়ে পণ্য কিনতে যায় এই প্রতারক চক্রের সদস্য সাদ্দাম হোসেন।

এসময় তার সাথে থাকা আরেক প্রতারক চক্রের সদস্য সুযোগ বুঝে তরিঘরি করে পালিয়ে যায়। প্রতারক চক্রের দুজন হলেন টাঙ্গাইল সদর ও নেত্রকোনার বাসিন্দা। সাদ্দাম টাঙ্গাইল সদর উপজেলার বকুলপুর গ্রামের আব্দুল রাজ্জাকের ছেলে।

জানা যায়, গাইবান্ধা শহরের বিভিন্ন মার্কেটে গিয়ে সাদ্দাম ও তার সহযোগীরা পণ্য কেনার নাম করে জাল টাকা চালিয়ে আসছিল। এরকম প্রতারণা নিউমার্কেটে সন্ধ্যায় পরপর তিনটি দোকানে করলে সাদ্দাম হোসেন নামে এক প্রতারক ধরা পড়ে সাধারণ মানুষের কাছে।

পরে তাকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশ কাছে সোপর্দ করে

মূলত ,খোলাহাটি গ্রামের ফজলুল হক সরকারের ছেলে একে এম সাইফুল ইসলাম, শাওন লাইব্রেরিতে জাল টাকা নিয়ে প্রতারনা করতে গেলে ধরা পরে যায় সে ও তার সহযোগী। এসময় তার কাছ থেকে একটি ব্যাগে কসমেটিক পণ্য,চামচ,ধানের বীজও পাওয়া যায়।
ভুক্তভোগী বই বিক্রেতা আধুনিক লাইব্রেরি, আবু রাহেন চাকলাদার বলেন এভাবেই এরা পণ্য-কেনার কথা বলে জাল টাকা চালিয়ে আসছে প্রতারক যাচ্ছে গাইবান্ধা বাসীকে। এদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা হোক।

সদর থানার এসআই মো. ইসমাইল হোসেন জানান এদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। ,

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ