বুধবার, জুন ১৯, ২০২৪

মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী হলেন তাজউদ্দীনকন্যা সিমিন হোসেন

যা যা মিস করেছেন

দ্যা মেইল বিডি ডেস্ক: মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী হয়েছেন সিমিন হোসেন রিমি। বৃহস্পতিবার (১১ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় শপথ গ্রহণের পর মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীদের দপ্তর বণ্টন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ কে কোন মন্ত্রণালয় পেয়েছে তা উল্লেখ করে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেন।

সিমিন হোসেন রিমি ১৯৬১ সালের ১৯ আগস্ট তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের ঢাকা জেলার গাজীপুরে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদ এবং আওয়ামী লীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সৈয়দা জোহরা তাজউদ্দীনের সন্তান। তার স্বামীর নাম মুশতাক হোসেন। তিনি সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তানজিম আহমেদ সোহেল তাজের বড় বোন।

২০১২ সালের সেপ্টেম্বরে গাজীপুর আসনের উপনির্বাচনে সিমিন হোসেন রিমি প্রথমবারের মতো সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন। এর পর ২০১৪ সালের জানুয়ারি অনুষ্ঠিত ১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নে আবারও এই আসন থেকে ২য় বারের মতো এমপি নির্বাচিত হন। ২০২২ সালের নভেম্বরে রিমিকে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়। আওয়ামী লীগ থেকে ১৯৯৬ সালের নির্বাচনে গাজীপুর (কাপাসিয়া) আসনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন তাজউদ্দীন আহমদের ছোট ভাই অ্যাডভোকেট আফসার উদ্দীন আহমদ খান। এর পর ২০০১ ২০০৮ সালে এমপি হন তাজউদ্দীনপুত্র তানজীম আহমদ সোহেল তাজ। পরে ২০১২ সালের উপনির্বাচন, ২০১৪ ২০১৮ সালে এমপি হন তাজউদ্দীনকন্যা সিমিন হোসেন রিমি। বর্তমানে এই আসনের সংসদ সদস্য রিমি এবারও আওয়ামী লীগ থেকে পেয়েছিলেন নৌকা প্রতীক। আর তার বিপক্ষে দাঁড়িয়েছিলেন রিমির ফুফাতো ভাই ঈগল প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী শিল্পপতি আলম আহমেদ। কিন্তু রিমির ভোটের সামনে দাঁড়াতেই পারেননি আলম আহমেদ। রিমি নৌকা প্রতীকে ৮৯ হাজার ৭২৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। অন্যদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী আলম আহমেদ ঈগল প্রতীকে পেয়েছেন ৪৪ হাজার ৪৫ ভোট। আলম আহমেদের থেকে রিমি ৪৫ হাজার ৬৮৪ ভোট বেশি পেয়ে টানা চতুর্থবারের মতো সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন। 

 

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ