রবিবার, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২৪

পাঁচবিবিতে শিয়ালের কামড়ে স্বামী স্ত্রী আহত। আতংকে এলাকাবাসী

যা যা মিস করেছেন

মোঃ বাবুল হোসেন, জয়পুরহাট সংবাদদাতাঃ

জয়পুরহাটের পাঁচবিবির ধরঞ্জীতে শিয়ালের কামড়ে দুই জন আহত হওয়ায় এলাকার বিভিন্ন গ্রামের শিশু- কিশোর সহ সাধারণ মানুষ শিয়াল আতংকে ভুগছেন।
সম্প্রতি উপজেলার ধরঞ্জীর সোনাপাড়া গ্রামের জনৈক আজাদুল ইসলামের স্ত্রী সোহাগী বেগম(৪২) বিকেল বেলায় বাড়ীর পাশে ধান পরিস্কার করার সময় হঠাৎ একটি শিয়াল পিছন থেকে তাকে আক্রমন করে জখম করে। এ সময় মহিলার চিৎকারে তার স্বামী আজাদুল ইসলাম এগিয়ে এলে তাকেও ঐ শিয়াল আক্রমণ করে জখম করে। পরে তাদের উভয়কেই আহত অবস্থায় জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়।
এ ঘটনার পর থেকে এলাকায় শিশু কিশোর সহ সাধারণ মানুষ শিয়াল ভীতিতে দিন কাটাচ্ছে। সন্ধ্যার পর ভয়ে একা কেউ ঘর থেকে বের হচ্ছে না। অনেকেই হাতে লাঠি নিয়ে চলা ফেরা করছেন। শুধু তাই নয় এলাকায় শিয়ালের আক্রমন থেকে বাঁচাতে শিশু ও গবাদিপশু নিয়ে চরম ভীতির মধ্যে রয়েছেন তারা।
বুধবার সন্ধায় এলাকার নন্দইল গ্রামের এক আদিবাসী রাবেয়া টুডু নামের মহিলা ধরন্জী বাজার থেকে শিয়াল আতংকে বাড়ি ফিরতে না পারায় স্হানীয় দুই জন লোক লাঠি হাতে তাকে বাড়িত পৌঁছে দেয় । এলাকার সিরাজুল ইসলাম বলেন, শিয়ালের আক্রমণের ঘটনায় মানুষের মনে ভয় বিরাজ করছে। এমন ঘটনা আগে কখনো ঘটেনি। হঠাৎ এমন ঘটনায় সন্ধার পর রাস্তায় লোকজন চলাচল করতে আতংক বোধ করছে ।
এ ব্যাপারে উপজেলা ভেটেনারী সার্জন ফয়সাল রাব্বী বলেন, শিয়াল র‍্যাবিশ আক্রান্ত হলে বা তাকে কেউ উত্যক্ত করলে তারা আক্রমণামত্মক আচরণ করে। এ সময় তারা মানুষ, গরু, ছাগল ও কুকুর যাকেই সামনে পায় তাকেই আক্রমণ করে।
উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ সোলায়মান হোসেন মেহেদী বলেন, শিয়ালের কামড়ে মানুষ ও পশু প্রাণীর জলাতঙ্ক রোগ হয়। এ ক্ষেত্রে অবশ্যই ভ্যাকসিন গ্রহণ করতে হবে। তবে যদি কাউকে শিয়াল আক্রমন করে তাহলে ক্ষতস্থান পরিস্কার করা সহ দ্রত চিকিৎসা নেওয়া প্রয়োজন বলে তিনি জানান।

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ