বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২৪

মাদারীপুরে ব্যাটারিচালিত ৫ টি চোরাই অটোভ্যান উদ্ধারসহ চোর চক্রের ৩ সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ

যা যা মিস করেছেন

মোঃ রোমান বেপারী, মাদারীপুর প্রতিনিধিঃ মাদারীপুরে ব্যাটারিচালিত ৫ টি চোরাই অটোভ্যান উদ্ধারসহ চোর চক্রের ৩ সদস্য আটক করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। শনিবার (২ ডিসেম্বর) দুপুরে মাদারীপুর সদর উপজেলার মোস্তফাপুর বাসস্ট্যান্ড থেকে তাদের আটক করা হয়।

রবিবার (৩ ডিসেম্বর) এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য নিশ্চিত করে মাদারীপুর জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোঃ আলাউল হাসান।

আটককৃত আসামীরা হলো মাদারীপুর সদর উপজেলার চাপাতলি গ্রামের মৃত আইয়ুব আলী শিকদারের ছেলে রেজাউল শিকদার (৩০), একই উপজেলার আমবাড়ি গ্রামের বাদল বেপারী ছেলে সুজন বেপারী (২৮), একই এলাকার মৃত মকবুল খালাসীর ছেলে আমিনুর খালসী (২৬)।

পুলিশ জানায়, শনিবার দুপুরে পুলিশের একটি আভিযানিক দল অভিযান পরিচালনা করে মাদারীপুর সদর উপজেলার মোস্তফাপুর বাসস্ট্যান্ডের ইউনুছ শেখের ফিরোজ খান ও আল্লাহর দান ফল ভান্ডার ফাঁকা আড়ৎ হইতে ০২টি ব্যাটারি চালিত চোরাই অটোভ্যান সহ আন্তঃজেলা অটোভ্যান চোর চক্রের ৩ সদস্যকে আটক করে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। পরে ১নং আসামী রেজাউল শিকদার এর স্বীকারোক্তি মতে মোস্তফাপুর বাসস্ট্যান্ডের মিজানুর খালাসীর ইসলামিয়া ফল ভান্ডার নামক ফাঁকা আড়ৎ থেকে আসামী আমিনুল খালাসীর দখল হইতে ১টি ব্যটারিচালিত চোরাই অটোভ্যান উদ্ধার করা হয়। পরবর্তীতে ১ ও ২নং আসামীর স্বীকারোক্তি মতে অভিযান পরিচালনা করে মোস্তফাপুর আমবাড়ীর বাদল বেপারীর গ্যারেজ হইতে ০২ টি ব্যাটারী চালিত চোরাই অটোভ্যান উদ্ধার করা হয়।

মাদারীপুর জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোঃ আলাউল হাসান বলেন, উক্ত ঘটনায় আসামীদের বিরুদ্ধে মাদারীপুর সদর থানায় মামলা রুজু প্রক্রিয়াধীন। উক্ত চেরাইচক্রের মূল হোতা রেজাউল শিকদার ও আমিনুর খালাসীর বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, মাদারীপুর জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ হাসানুজ্জামান ও গোয়েন্দা পুলিশের সদস্যরা।

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ