সোমবার, মার্চ ৪, ২০২৪

সঠিক তথ্য উপস্হাপনই সাংবাদিকদের কাজ- আরেফিন সিদ্দিকী

যা যা মিস করেছেন

স্টাফ রিপোর্টার:

বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য এবং বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (বাসস) বিদায়ী চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেছেন, সঠিক তথ্য উপস্থাপন করাই সাংবাদিকদের কাজ। অপ-তথ্য থেকে সাংবাদিকদের দূরে থাকতে হবে। সত্য তথ্য প্রকাশ করার কাজ কাজ করতে হবে। সত্য তথ্য মানেই একটি সংবাদ। সংবাদ প্রকাশ করার কারণে অনেক সাংবাদিককে জীবন দিতে হয়েছে। স্থানীয় লোকজন সংবাদ সংক্রান্ত কারণেই সাংবাদিকদের চিহ্নিত করে রাখে সুযোগ পেলেই প্রতিশোধ নেয়। আমরা নিহত সাংবাদিক হুমায়ূন কবির, মানিক সাহা সহ অনেকের পরিবারের সাথে কথা বলে জেনেছি, স্থানীয় লোকজনই তাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করেছে, চক্রান্ত করেছে এবং হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। কারণ মফস্বলের সবাই সবাইকে চেনে আপনাদেরও এ এলাকায় ভাল মন্দ সব মানুষই চিনে।সাংবাদিকদের সুরক্ষা যে যে গণমাধ্যমে কাজ করেন তাদেরও দায়িত্ব আছে। কিন্তু মূল দায়িত্ব দেশের আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর। সুরক্ষটা নিশ্চিত করা যায় যখন একান একজন সাংবাদিক লাঞ্চনা গঞ্জনার শিকার হন, আহত বা নিহত হন সেটার জন্য দ্রুত বিচার, সামছুর রহমান ক্যাবলের হত্যাকাণ্ডের বিচার তার প্রমান। সাংবাদিক কাজ করেন সত্য প্রকাশের জন্য আর সত্যের শত্রু সবজায়গায়।

তিনি আরো বলেন, সাংবাদিক কাজ করেন সত্য প্রকাশের জন্যে। আর সত্যের শত্রু সব জায়গায় আছে। তারা আছে জানার পরও সাংবাদিকরা এই পেশায় এসেছেন। কিন্তু এই পেশার সুযোগসুবিধা মালিকপক্ষ কতটা দিচ্ছেন, আমি জানি না। তবে আমার ধারনা সাংবাদিকদের সঠিক মূল্যায়নটা হচ্ছে না। অথচ, সাংবাদিকদের ঝুঁকিটা একেবারে জীবনের ঝুঁকি। তারপরও এই পেশায় যদি সুযোগসুবিধা না থাকে তাহলে যে কেউ সাংবাদিকতায় আসবে কেন। তাই সাংবাদিকদের সঠিক প্রণোদনা দেয়া রাষ্ট্রের দায়িত্ব, গণমাধ্যমের দায়িত্ব। কিন্তু আমরা অনেকেই হয় তো সেই দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করছি না। তারপরও আপনারা সত্য প্রকাশের জন্য এই পেশায় এসেছেন। কাজেই সত্যের যে শত্রু সে আপনার পেছন ছাড়বে না। সত্যনিষ্ঠ বস্তুনিষ্ঠ প্রতিবেদন তৈরি করা এমনকি আপনার তৈরি প্রতিবেদন কি নির্ভয়ে প্রকাশ করতে পারছে আপনার গণমাধ্যম। নানা ধরনের অপরাধপ্রবণতা আমাদের সমাজে আছে এমন কি আমাদের গণমাধ্যম জগতেও আছে। সেগুলো মোকাবেলা করেই সাংবাদিকদের এগিয়ে যেতে হবে। জনগণের কাছে সত্য তথ্য প্রকাশ করে গণমাধ্যম।সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের কোন এডিটোরিয়াল ডেস্ক নেই। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যাচাই বাছাই না করে তথ্য পরিবেশন করে এটা অনেকটা গুজব ছড়িয়ে দেয়ার কাজ করছে। ফলে অনেক মিথ্যা তথ্য উপাত্ত ছড়িয়ে পড়ছে।

আজ রবিবার দুপুরের সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের মিলনায়তনে সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি অধ্যক্ষ শেরগুল আহমদ এর সভাপতিত্বেও বাসস সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি আল-হেলাল এর সঞ্চালনায় স্থানীয় সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মতবিনিময় সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিধ মিরানা সুলতানা, বাংলাদেশ ফিমেইল একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা জামিল চৌধুরী, সুনামগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সিনিয়র সহসভাপতি, দৈনিক সুনামকণ্ঠের সম্পাদক বিজন সেন রায়, সাধারণ সম্পাদক রওনক আহমেদ, সুনামগঞ্জ রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি মাহবুবুর রহমান পীর, সাংবাদিক কেজি মানব, মাসুম হেলাল, হিমাদ্রি শেখর ভদ্র, একে কুদরত পাশা, রাজু আহমেদ রমজান প্রমুখ।

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ