শুক্রবার, জুন ২১, ২০২৪

গাইবান্ধায় দুই বন্ধুকে নিয়ে প্রেমিকাকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ আটক-২” আদালতে জবানবন্দি?

যা যা মিস করেছেন

মনিরুজ্জামান খান গাইবান্ধা:

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় দুই বন্ধুকে নিয়ে এক প্রেমিকাকে (১৪) সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। কিশোরীর সঙ্গে আরও কয়েকজনের প্রেমের সম্পর্ক থাকায় ক্ষুব্ধ হয়ে এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটিয়াছে বলে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে প্রেমিক মনিরুল ইসলাম (২০)। নামের ওই যুবক।

শনিবার (২৭ জুলাই) গোবিন্দগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামসুল আলম শাহ এ তথ্য নিশ্চিত করেন। অভিযুক্ত মনিরুল ইসলাম গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার শালমারা ইউনিয়নের শালমারা গ্রামের জাহিদুল ইসলামের ছেলে। আর ধর্ষণে অংশ নেওয়া দুই বন্ধু হলো- একই গ্রামের মজনু শেখের ছেলে অসীম শেখ (২০) ও শরিফুল শেখের ছেলে শহীদ শেখ (২২)। ধর্ষকদের মধ্যে শহীদ এখনো পলাতক রয়েছে। তবে ধর্ষককে হননি হয়ে খুঁজছে পুলিশ।

প্রেমিক মনিরুল জবানবন্দিতে জানায়, ১৪ বছরের এক কিশোরীর সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। প্রেম চলাকালীন সে জানতে পারে ওই কিশোরীর আরো কয়েকজনের সম্পর্ক রয়েছে। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে তার সহযোগী বন্ধু অসীম ও শহীদকে সাথে নিয়ে

গত (৪ এপ্রিল) কিশোরীকে কৌশলে তার বাড়ির পিছনে ডেকে এনে দলবদ্ধ ধর্ষণ করে। এ ঘটনা উভয়পক্ষই চাপা দিলেও পরবর্তীতে কিশোরীটি অসুস্থ হওয়ায় সংঘবদ্ধ ধর্ষণের বিষয়টি প্রকাশ পায়। পরে কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে( গত ১৯ এপ্রিল) ওই তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে গত শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) গোবিন্দগঞ্জ চৌকি আদালতে মনিরুল ও অসীম ঘটনার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে।

গোবিন্দগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামসুল আলম শাহ বলেন, মামলার অভিযুক্ত তিনজনের মধ্যে মনিরুল ও অসীমকে জবানবন্দি শেষে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ