মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২৪

ভেকুর আঘাতে তিতাসের গ্যাস পাইপ বিধ্বস্ত; ২৪ ঘন্টা পার হলেও মেরামত হয়নি

চরম ভোগান্তিতে নেত্রকোণার প্রায় সাড়ে ৫ হাজার গ্রাহক; হোটেল-রেস্তোরায় খাবারের মানুষের উপচে পড়া ভীড়

যা যা মিস করেছেন

কে. এম. সাখাওয়াত হোসেন: তিতাস গ্যাসের সঞ্চালন পাইপে এক্সাভেটরের (ভেকুর) আঘাতে বিধ্বস্ত হওয়ায় নেত্রকোণার জেলা শহরের প্রায় সাড়ে পাঁচ হাজার গ্রাহক গত দুদিন যাবত চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন। গত শুক্রবার বিকেল ৪টা থেকে শনিবার সন্ধ্যা (এ প্রতিবেদন লেখা) পর্যন্ত গ্যাস মেরামতের কাজ সম্পন্ন তিতাস কর্তৃপক্ষ।

এ দিকে নেত্রকোণায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকা পর থেকে জেলা শহরের বিভিন্ন হোটেল, রেস্তোরা ও খাবারের দোকানে মানুষে উপচে পড়ে ভীড় দেখা গেছে।

জানা যায়, গত শুক্রবার বিকেল ৪টার দিকে ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার ডেংগা পূর্বপাড়া এলাকায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের আওতায় সোয়াই নদী খননকালে ভেকু দিয়ে মাটি কাটার সময় মাটির নিচের থাকা গ্যাসের প্রধান সঞ্চালন লাইন আঘাত প্রাপ্ত হয়। এতে সঞ্চালন লাইনটি বিধ্বস্ত হয়ে পড়ে। এসময় বিকট শব্দে অনবরত গ্যাস বের হতে থাকে।

এতে স্থানীয়দের মাঝে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়। স্থানীয়রা ৯৯৯, ফায়ার সার্ভিস, নেত্রকোনা পানি উন্নয়ন বোর্ড, গৌরীপুর থানা, নেত্রকোণার পূর্বধলা ও ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এবং তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষকে অবহিত করে। খবর পেয়ে নেত্রকোনা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী সারোয়ার জাহান, পূর্বধলার ইউএনও মো খবিরুল ইসলাম ও তিতাস গ্যাস কতৃপক্ষ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

গৌরীপুরের ময়লাকান্দা ইউনিয়নের ডেংগা গ্রামের বাসিন্দা মো. সোহেল মিয়া জানান, পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষের অসতর্কতা, খাম খেয়ালিপনা ও উদাসীনতার কারণে এ ঘটনা ঘটেছে।

তিতাসের ময়মনসিংহ অঞ্চলের ম্যানেজার (অপারেশন) হিলটন পাল জানান, ক্ষতিগ্রস্ত পাইপটি প্রায় পাঁচ ফুটের মতো কেটে নতুন করে সংযোজন করতে হবে। এরজন্য ঢাকা থেকে পাইপ ও লোকজন এসে আজ (শনিবার) সকাল থেকে কাজ শুরু করেছে। এখানো কাজ শেষ করা সম্ভব হয়নি।

তিতাস গ্যাসের নেত্রকোনা আঞ্চলিক অফিসের প্রকৌশলী সুমঙ্গল গোলদার জানান, ময়মনসিংহের গৌরীপুরের ময়লাকান্দা এলাকায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের উন্নয়ন কাজের জন্যে মাটি কাটার সময় ভেকুর আঘাতে গ্যাস সরবরাহের মূল লাইন ছিদ্র হয়ে গেছে। দুর্ঘটনার আশঙ্কায় তাৎক্ষণিক ময়মনসিংহ থেকে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ রাখা হয়েছে। তিনি আরও জানান নেত্রকোনায় তিতাস গ্যাসের সাড়ে পাঁচ হাজার গ্রাহক রয়েছে। আশা করছি রাত ১০টার মধ্যে মেরামত কাজ সম্পন্ন শেষে গ্যাস সরবরাহ করা সম্ভব হবে।

নেত্রকোনা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী সারোয়ার জাহান বলেন, আমি ঘটনাস্থলেই রয়েছি। দুর্ঘটনা বশত হয়ে গেছে। প্রতিকারের ব্যবস্থা নিচ্ছি।

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ

শিবগঞ্জে বিএনপির’ লিফলেট বিতরণ