শুক্রবার, মার্চ ১, ২০২৪

গভর্নরের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর কাছে চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অর্থমন্ত্রী

যা যা মিস করেছেন

Abul muthit themailbd

বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড.আতিউর রহমানের সঙ্গে কথা বলেই তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত।  বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ থেকে টাকা চুরির ঘটনায় গভর্নর ড. আতিউর রহমানের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর কাছে চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

সোমবার অর্থ মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “ডেফিনেটলি দেয়ার উড বি চেইঞ্জেস।  এতো বড় একটা সিরিয়াস ব্যাপার।  আই টেক ইট ভেরি সিরিয়াসলি।”

ফিলিপিন্সের ডেইলি ইনকোয়ারারে ২৯ ফেব্রুয়ারি  প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বাংলাদেশ ব্যাংকের ৮১ মিলিয়ন ডলার লোপাটের খবর এলে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে আলোচনার ঝড় ওঠে।

তদন্তে জানা যায়, গত ৪ ফেব্রুয়ারি সুইফট মেসেজিং সিস্টেমে হ্যাংকিংয়ের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউ ইয়র্কে সঞ্চিত বাংলাদেশ ব্যাংকের ওই অর্থ ফিলিপিন্সের একটি ব্যাংকে সরিয়ে ফেলা হয়।

শ্রীলঙ্কার একটি ব্যাংকে আরও ২০ মিলিয়ন ডলার সরানো হলেও বানান ভুলের কারণে সন্দেহ হওয়ায় শেষ মুহূর্তে তা আটকে যায়।

বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক শুরুতেই বিষয়টি টের পেলেও কর্মকর্তারা তা গোপন করে যাওয়ায় অর্থমন্ত্রী মুহিতকে এক মাস পর তা পত্রিকা পড়ে জানতে হয়।

অর্থ লোপাটের বিষয়টি চেপে গিয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংক যেভাবে তা সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেছে তাকে ‘অযোগ্যতা’ আখ্যায়িত করে ক্ষুব্ধ মুহিত রোববার বলেন, এই ‘স্পর্ধার’ জন্য ‘অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে’।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করে এ বিষয়ে একটি বিবৃতি দেবেন বলেও জানিয়েছিলেন মুহিত।

প্রধানমন্ত্রী কোনো নির্দেশনা দিয়েছেন কি-না জানতে চাইলে মুহিত নিজের মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের বলেন, “আই অ্যাম ওয়েটিং ফর আতিউর।  আমি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করব বলেছিলাম, আলোচনা আমার হয়েছে।

এখন বিবৃতি দেবেন কি না জানতে চাইলে অর্থমন্ত্রী বলেন, “আর কিছু স্টেটমেন্ট নাই।  গভর্নর ফিরে আসলে আই উইল… স্টেটমেন্ট।  সেটা আজও হতে পারে, কালও হতে পারে । কারণ সে কখন আসবে-তার কোনো ঠিক নাই।”

পরে এ বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, “ যে মুহূর্তে প্রধানমন্ত্রী বিরাট বিরাট প্রকল্প করছেন, রিজার্ভ রেকর্ড পরিমাণ, জিডিপি ৭ শতাংশ হবে বলে মনে করছি… সেই  মুহূর্তে বাংলাদেশ ব্যাংকের এই ঘটনা আমাদের জন্য দুর্ভাগ্যজনক।

“এটা আমরা কল্পনা করি নাই, আমরা চিন্তা করি নাই, এ ব্যাপারে অবশ্যই বাস্তব পদক্ষেপ গ্রহণ করব।  ব্যাপারটা ইতোমধ্যে প্রধানমন্ত্রী, অর্থমন্ত্রী- আমরা সকলেই গুরুত্ব সহকারে নিয়েছি।”

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ