শুক্রবার, মার্চ ১, ২০২৪

অ্যাপল যুদ্ধে স্যামসাংয়ের শেষ চেষ্টা

যা যা মিস করেছেন

অ্যাপলকে দেওয়া ৫৪ কোটি ৮০ লাখ ডলার ক্ষতিপূরণ ফেরত পেতে শেষ ভরসা হিসেবে মার্কিন সুপ্রিম কোর্ট পর্যন্ত গিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়াভিত্তিক ইলেকট্রনিক্স পণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান স্যামসাং।

apple samsung the mail bd

রয়টার্স জানিয়েছে, স্যমসাং-এর ওই পিটিশন প্রথমে সুপ্রিম কোর্টের রিভিউ হিসেবে গৃহীত হতে হবে।

সোমবার অ্যাপলকে ৫৪ কোটি ৮০ লাখ ডলার ক্ষতিপূরণ পরিশোধ করেছে স্যামসাং। উচ্চ আদালতের পিটিশনে ওই পেটেন্ট লঙ্ঘনের দায়ে ক্ষতিপূরণের অংকটা ৩৯ কোটি ৯০ লাখের বেশি হওয়া উচিত নয় বলে দাবি করেছে স্যামসাং।

প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে বলা হয়, “একটি চামচ বা কম্বলের জন্য একটি পেটেন্টেড ডিজাইন দরকারি ফিচার হয়ে উঠতে পারে। কিন্তু স্মার্টফোনের ক্ষেত্রে এটা সত্য নয়, যেখানে তাদের ডিজাইনের সঙ্গে পুরোপুরি ভিন্ন চিহ্নিত করা যায় এমন অগণিত অন্যান্য ফিচার রয়েছে।”

পড়ার সুবিধার জন্য ফ্ল্যাট স্ক্রিন বা পকেটে রাখা সহজ করতে বাঁকানো কোণের মতো ‘ফাংশনাল’ ডিজাইন ফিচারের ক্ষেত্রে বিচারকদের ক্ষতিপূরণ ধার্য করা উচিত নয় বলে সোমবারের পিটিশনে সুপ্রিম কোর্টকে জানিয়েছে স্যামসাং।

এক বিবৃতিতে প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, “স্যামসাং এই মামলা ত্বরান্বিত করছে, কারণ এক্ষেত্রে যে উপায়ে আইন ব্যাখ্যা করা হয়েছে তা আধুনিক সময়ের সঙ্গে যায় না।”

অন্যদিকে অ্যাপল এক বিবৃতিতে বলেছে, “আমরা আমাদের গ্রাহকদের খুশি করতে এইসব পণ্য বানাই, প্রতিদ্বন্দ্বীরা অসৎভাবে নকল করবে সে জন্য নয়।”

২০১২ সালে এক মামলার রায় অনুযায়ী অ্যাপলকে ক্ষতিপূরণ হিসেবে একশ’ পাঁচ কোটি ডলার দেওয়ার রায় এসেছিল। পরবর্তীতে স্যামসাংয়ের আবেদনে মোট ক্ষতিপূরণের পরিমাণ কমিয়ে ৯৩ কোটিতে নিয়ে আসা হয়। এরপর জরিমানা দুইভাগে ভাগ করে দেওয়া হয়- পেটেন্ট আইন লঙ্ঘনের দায়ে ৫৪ কোটি ৮০ লাখ ডলার আর অ্যাপলের প্যাকেজিং নকল করার দায়ে ৩৮ কোটি ২০ লাখ ডলার। রায়ে দ্বিতীয় ভাগের অর্থ ২০১৬ সালে পরিশোধের সুযোগ দেওয়া হয়েছে।

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ