বুধবার, জুন ১২, ২০২৪

বেসিস বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করতে চান তৌফিকুল করিম সুহৃদ

যা যা মিস করেছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক
দেশের তথ্যপ্রযুক্তি ও সফটওয়্যার সেবা খাতের শীর্ষ বাণিজ্যিক সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেসের (বেসিস) ২০২৪—২৬ মেয়াদী কার্যনির্বাহী কমিটির নির্বাচন আগামী ৮ মে। নির্বাচনে ‘টিম সাকসেস’ প্যানেল থেকে অংশ নিচ্ছেন তথ্যপ্রযুক্তি উদ্যোক্তা ও ফিঙ্গারটিপস ইনোভেশনসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তৌফিকুল করিম সুহৃদ।

নির্বাচনে অংশ নেওয়া এবং বেসিস নিয়ে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা জানিয়েছেন তিনি। জয়ী হলে মূলত চারটি বিষয়ের উপর জোর দেবেন বলে জানান তিনি। তিনি বলেন, ‘বেসিসে আমি প্রধান যে কাজটি করতে চাই সেটি হলো বেসিস বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা। কেননা আমাদের দেশে মেধাবীর সংখ্যা অনেক। তবে তাদেরকে ঠিক করে গড়ে তুলবে এমন প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা কম। আমি চাই আমাদের দেশের মেধাবীরা বেসিস বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নিজেদেরকে স্মার্ট বাংলাদেশের উপযোগী করে গড়ে তুলবে এবং সেই মেধা আমার দেশের উন্নয়নেই কাজে লাগবে।’

সুহৃদের জন্ম রাজধানীর পুরান ঢাকায়। পড়ালেখা করেছেন স্বনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সেন্ট যোসেফ স্কুল এবং নটরডেম কলেজে। পরবর্তীতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান বিভাগে স্নাতক করে এনসিসি (ইউকে) থেকে আন্তর্জাতিক ডিপ্লোমা করেছেন সফটওয়্যার স্টাডিজে। কাজ করেছেন এরিকসন, গ্রামীণফোণে এবং বাংলালিংক এ।

ক্যারিয়ারের শুরুর দিকের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘প্রথম থেকেই ভীষণ রকম চ্যালেঞ্জিং সফটওয়্যার তৈরী আর পরিকল্পনা ছিলো নেশার মতো, সে—ই সূত্রেই ছাত্রাবস্থায় প্রথম ৮৮ সালে বেসিক প্রোগ্রামিং শিখে আইটি জগতের প্রতি আগ্রহ, তারপর সিকিউরিটি এনক্রিপশন সফটওয়্যার দিয়ে ডিপ্লোমা প্রজেক্ট করা, ভোটার আইডি কার্ডের ড্যাটাবেজ ও নেটওয়ার্ক ম্যানেজমেন্ট চাকরির প্রথম প্রজেক্ট, ল্যামিনেটেড ড্রাইভিং লাইসেন্স, ভেহিকেল রেজিষ্ট্রেশন এর সঙ্গে সঙ্গে মাইক্রোসফট এর প্রথম বাংলাদেশের বিক্রয় প্রতিনিধি হিসেবে কাজ দিয়ে শুরু ৯৫ সালের মার্চে। পরবর্তীতে বাংলাদেশের প্রথম জাভা প্রোগ্রামার, সান সার্টিফাইড ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে বাংলাদেশ, ভুটান, মায়ানমারের সঙ্গে দেশের টেলিযোগাযোগ সেক্টরের সাপোর্ট সার্ভিস সেবা প্রদান, এন্টারপ্রাইজ সল্যুশনস ইন্সটল করেছিলাম মৃত্তিকা সম্পদ উন্নয়ন ইন্সটিটিউট — এসআরডিআই, আইসিডিডিআরবি, অ্যাটমিক এনার্জি রিসার্চ এস্টাবলিশমেন্ট, সঙ্গে দেশের প্রথম ইন্টারনেট সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠান প্রশিকানেট এ।’

স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে তথ্যপ্রযুক্তি শিল্পের মেধার বিকাশের স্বপ্ন নিয়ে দেশকে বিশ্বমানের সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার তৈরির উৎকর্ষ বেসিস এর সঙ্গে কাজ করতে চান বলে জানান এই প্রার্থী।তিনি বলেন, ‘২০১১ থেকে বিলেতে প্রবাসী হলেও ফিরে এসেছি দেশের জন্য কিছু করতে। দেশের মেধাবীদের জন্য একটি আন্তর্জাতিক মানের বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বপ্ন বাস্তবায়নের অঙ্গীকার করেই আগাতে চাই। ফিরিয়ে আনতে চাই বাংলাদেশের জন্য এপিকটা সদস্যপদ। এছাড়া দ্রুততম সময়ে বেসিস এর সংবিধান সময়োপযোগী করার জন্য যথাযথ ব্যবস্থা নিতে কাজ করতে চাই, ডিউক ভাইয়ের সাথে ওনার নির্দেশনায়।’ দেশের আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে আইটি কোম্পানির জন্য সহজ আর সুলভে ঋণ পাওয়ার বিষয়েও কাজ করতে চান বলে জানান সুহৃদ।

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ