সোমবার, মে ২৭, ২০২৪

চাঞ্চল্যকর আপন ছোট ভাইকে হত্যা মামলার আসামীরা র‌্যাবের জালে আটক

যা যা মিস করেছেন

এম এ হাসান, দিনাজপুর জেলা প্রতিনিধিঃ

দিনাজপুরের চাঞ্চল্যকর আপন ছোটভাই হত্যা মামলার প্রধান আসামী সহ ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব – ১৩ দিনাজপুর ক্যাম্প সুত্র জানায়, দিনাজপুর জেলার কোতয়ালী থানাধীন বালুয়াডাঙ্গা গ্রামের বাসিন্দা উক্ত মামলার বাদী বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ হাসান আলী একজন অবসর প্রাাপ্ত পুলিশ সদস্য। বাদীর দুই ছেলে প্রধান আসামী মোঃ মাসুদ রানা (৪০) ও ভিকটিম মোঃ রাসেল রেজাদ্বয়ের মধ্যে বসত বাড়ীর ভিটার জায়গা ভাগবন্টন এবং পারিবারিক বিষয়াদী নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। প্রায় ৪ বছর পূর্বে বাদীর বসত বাড়ীর মাঝাখান দিয়ে ইটের প্রাচীর নির্মাণ করলে বাড়ীর উত্তর অংশে বাদীর বড় ছেলে অর্থাৎ ১নং আসামী মোঃ মাসুদ রানা তার স্ত্রী সন্তানকে নিয়ে বসবাস করে এবং দক্ষিন অংশে বাদী ও তার স্ত্রী ও ছোট ছেলে ভিকটিম মোঃ রাসেল রেজা সহ বসবাস করে আসছিল। মাঝে মধ্যেই দুই পরিবারের মধ্যে ঝগড়া বিবাদ হত এবং ১নং আসামী বাদীকে ও বাদীর স্ত্রী সহ ছোট ছেলে ভিকটিমকে খুন করার হুমকী প্রদান করত। একপর্যায়ে গত ১৭ এপ্রিল (বুধবার) সকাল অনুমান ০৭.৩০ ঘটিকার সময় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে একই উদ্দেশ্যে ১, ২ ও ৩নং আসামী গন বাদীর বাড়ীর ভিতর থেকে ভিকটিমকে গালিগালাজ করতে থাকে এবং খুন করার হুমকী দিতে থাকলে ভিকটিম বাড়ী থেকে বের হয়ে আসামীদের বাড়ীর গেটের সামনে বাঁধের রাস্তাার উপর পৌঁছিলে ১, ২ ও ৩নং আসামীগন ধারালো কুড়াল, বটি ও দা নিয়ে তাদের বাড়ী থেকে বের হয়ে এসে ভিকটিমকে হত্যার উদ্দেশ্যে ভিকটিমের মাথায় স্বজোরে আঘাত করে। এছাড়াও আসামীদের হাতে থাকা ধারালো বটি, দা দিয়ে উপর্যুপরী কোপ দিয়ে ভিকটিমের দুই পা সহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে গুরুত্বর রক্তাক্ত কাটা জখম করে। এ সময়ে ভিকটিমের চিৎকারে বাদী ও বাদীর স্ত্রী সহ অন্যান্য প্রতিবেশীরা দ্রæত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ভিকটিমকে আসামীদের কবল থেকে উদ্ধার করে এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকাল অনুমান ০৫.০০ ঘটিকায় মৃত্যু বরণ করেন। উক্ত হত্যা কান্ডের ঘটনায় ভিকটিমের পিতা বাদী হয়ে দিনাজপুর জেলার কোতয়ালী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ঘটনাটি স্থানীয় এবং জাতীয় সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হলে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যর সৃষ্টি করে। এর প্রেক্ষিতে ঘটনাটি নিয়ে র‌্যাব গোয়েন্দা অনুসন্ধান শুরু করে।

এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-১৩, ক্রাইম প্রিভেনশন কোম্পানী-১, দিনাজপুর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, উক্ত চাঞ্চল্যকর হত্যা কান্ডের ঘটনার আসামীগন সিরাজগঞ্জ জেলার সদর থানা এলাকায় অবস্থান করছে। উক্ত গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১৩, সিপিসি-১, দিনাজপুর এবং র‌্যাব-১২, সদর কোম্পানী, সিরাজগঞ্জ এর দুটি আভিযানিক দল ২০ এপ্রিল (শনিবার) ভোর ৪ টায় সিরাজগঞ্জ জেলার সদর থানাধীন ১৪নং ওয়ার্ডের অর্ন্তগত মালসাপাড়া এলাকা হতে যৌথ অভিযান পরিচালনা করে বর্ণিত হত্যা কান্ডের প্রধান আসামী মোঃ মাসুদ রানা (৪১) ও তার স্ত্রী মোছাঃ ফারহানা রিমা (৩৫), এবং তার ছেলে মোঃ ফারহান আলী রনক (১৫) আত্মগোপনকৃত অবস্থায় গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

ধৃত আসামীগনকে দিনাজপুর জেলার কোতয়ালী থানায় বিধি মোতাবেক হস্তান্তর করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-১৩ দিনাজপুর ক্যাম্পের
উপ পরিচালক (মিডিয়া) স্কোয়াড্রন লীডার ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট মাহমুদ বশির আহমেদ।

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ