বুধবার, এপ্রিল ১৭, ২০২৪

বশেমুরবিপ্রবিতে ছোলার কেজি ২০০ টাকা!

যা যা মিস করেছেন

বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ

গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) ক্যাফেটেরিয়া বন্ধ রয়েছে। ফলে বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরীননি উমার্কেটে বসা দোকানগুলোতে ইফতার সামগ্রীর দাম বাইরের তুলনায় বেশি রাখা হচ্ছে। এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরে ছোলার দাম কেজি প্রতি ১৪০-১৬০ টাকা রাখলেও নিউমার্কেটে কেজিপ্রতি ২০০ টাকা, মুড়ির দাম ৭৫-৮০ টাকা, জিলাপির দাম ১৬০ টাকা রাখলেও নিউমার্কেটে তার দাম কেজি প্রতি ৯০ ও ১৮০/২০০ টাকা পর্যন্ত রাখা হচ্ছে। এছাড়া খেজুর বাইরে রকমভেদে ৪০০-৬০০ টাকা রাখা হলেও নিউমার্কেটে তার দাম ৫০০ টাকা থেকে শুরু হয়েছে। এমনকি পিয়াজু ও চপের দাম উভয় স্থানে একই থাকলেও বাইরের তুলনায় নিউমার্কেটে আকার ছোট করে বিক্রি করা হচ্ছে। এছাড়াও ক্যাম্পাসে বিভিন্ন প্রকারের কাঁচা সবজি,ডাল, ডিম,তেল সহ নিত্য প্রয়োজনীয় সব কিছুর দাম ৫ থেকে ১০ টাকা বেশি রাখা হচ্ছে।

এ বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষার্থী সায়মা সুপ্ত বলেন, “রমাদান উপলক্ষে বিশ্বের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে মুসলিম শিক্ষার্থীদের ফ্রীতে খাবার দেয়া, ইফতার ও সাহরি আরামদায়ক করতে বিভিন্ন সুযোগ সৃষ্টি করে দিচ্ছে, সেখানে আমাদের ক্যাফেটেরিয়া বন্ধ করে রাখা হয়েছে। হলের ডায়নিং বন্ধ রয়েছে।  বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে অবস্থিত দোকানগুলোতে চড়া দামে খাবার বিক্রি করছে অথচ এগুলো প্রশাসনের দৃষ্টিগোচর হচ্ছে না। আমাদের দাবি প্রশাসন যেন অতিদ্রুত বিষয়টি আমলে নিয়ে সমাধান করে।”

কৃষি বিভাগের ১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী মোঃ হাসান বলেন,” ক্যাম্পাসে যে দোকানগুলো আছে তাদের কোনো দোকান ভাড়া দেওয়া লাগে না। তারপরও দেখা যাচ্ছে রমযান উপলক্ষে বিভিন্ন ইফতারি পণ্যের দাম দোকানগুলোতে ঘোনাপাড়া বা শহরের থেকে বেশি রাখছে।এই যে শহর বা ঘোনাপড়া থেকে ক্যাম্পাসের ভিতরে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের, ইফতারির দাম বেশি নেওয়া হচ্ছে, এটা আমাদের মত সাধারণ শিক্ষার্থীদের  হায়রানি করা হচ্ছে। কোনো দোকান ভাড়া দিতে হয় না যেখানে, সেখানে আরো কম দামে দেওয়ার কথা। কিন্তু সে জায়গায় আরো বেশি টাকা দিয়ে আমাদের কিনতে হচ্ছে। তাই আমি প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি যেন খুব দ্রুতই এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেন এবং বাইরের থেকে যাতে কম দামে শিক্ষার্থীরা  কিনতে পারে সে ব্যাপারটা নিশ্চিত করেন।”

নিউমার্কেটের খাবারের দোকান গুলোতে বাইরের থেকে অতিরিক্ত মূল্য রাখার বিষয়ে উপাচার্য একিউএম মাহবুব বলেন, “আমরাতো এটা মনিটরিং করি না,মনিটরিং যেটা করার কথা তা হলো ক্যাফেটেরিয়া। ক্যাফেটেরিয়া খোলা থাকলে কম দামে খাবার বিক্রি করলে তারা বেশি দাম নিতে পারতোনা। আর তাদের থেকে তো ভাড়া নেওয়া হয়না, তাহলে কেনো তারা বাইরের থেকে বেশি দাম নিবে।এই বিষয়ে মনিটরিং করা প্রয়োজন। কাল আমি ক্যাফেটেরিয়ার প্রশাসন ও প্রক্টরকে নিয়ে বসবো এই বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য ।”

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ