সোমবার, এপ্রিল ৮, ২০২৪

নেত্রকোণায় কলেজ ছাত্রী ধর্ষণ ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত গ্রেপ্তার

যা যা মিস করেছেন

কে. এম. সাখাওয়াত হোসেন: নেত্রকোণার মদন উপজেলায় একাদশ শ্রেণি ছাত্রী কলেজে যাওয়ার পথে তুলে নিয়ে ধর্ষণের ঘটনায় মামলার প্রধান আসামি সাজন মিয়াকে (২২) গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। অভিযুক্ত সাজন মিয়া উপজেলার পূর্ব জাহাঙ্গীরপুর এলাকার মাসুদ মিয়ার ছেলে।

বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) দুপুরের দিকে প্রেরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এতথ্য জানান কিশোরগঞ্জ র‌্যাব-১৪ এর কোম্পানী অধিনায়ক স্কোয়ড্রন লীডার মো. আশরাফুল কবির। এরআগে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত মঙ্গলবার রাত পৌনে ৮টার দিকে সাজনকে র‌্যাব-১ এর সহায়তায় ঢাকা উত্তরা পূর্ব থানাধীন চার নম্বর সেক্টর পার্কের সামনে অভিযান পরিচালনা করে গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাব জানায়, ভুক্তভোগী মদন জুবাইদা রহমান মহিলা ডিগ্রী কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী। ভুক্তভোগী নিজ বাড়ি থেকে কলেজে যাওয়ার সময় প্রায় সময় সাজন মিয়া কুপ্রস্তাবসহ উত্যক্ত করত। গত ১৩ ফেব্রæয়ারি আনুমানিক সকাল ১০টার দিকে ভুক্তভোগী কলেজে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে রওনা দেন। মদনের জাহাঙ্গীরপুর মিতালী রোডে আসলে সাজন মিয়া ওই ছাত্রীকে তুলে নিয়ে যায়। ওই এলাকায় জনৈক বেলায়েত হোসেনের চালের গুদামে নিয়ে হত্যার ভয়ভীতি দেখিয়েসকাল ১০টার হতে বিকেল ৫টার মধ্যে জোরপূর্বক একাধিকবার ধর্ষণ করে সাজন মিয়া।

ধর্ষণের এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর মা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মদন থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা রুজুর হওয়ার পর হতে এজাহারভুক্ত আসামি সাজন মিয়া গ্রেফতার এড়াতে এলাকা ছেড়ে বিভিন্ন স্থানে পালিয়ে বেড়াতে থাকে। তার বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনানুগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানায় র‌্যাব।

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ