মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২৪

দুর্গাপুরে দূর্নীতিবাজ ও ভূমিদস্যু বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

যা যা মিস করেছেন

দুর্গাপুর (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি –

নেত্রকোনার দুর্গাপুর দূর্নীতিবাজ ও ভূমিদস্যু বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ দুপুরে দুর্গাপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এই সংবাদ সম্মেলন করেন উপজেলার সদর ইউনিয়নের চকলেঙ্গুরা ভুক্তভোগী মোঃ আলিম উদ্দিন সহ তার পরিবারের সদস্যরা।

এ সময় তিনি  এক লিখিত বক্তব্যে বলেন, আমার বড় ভাইয়ের প্রথম স্ত্রী জুলেখা খাতুন চার কন্যা রেখে আনুমানিক ১৯৭৩ সনে মারাযান পরবর্তী সময়ে আমার বড় ভাই মোঃ মোন্তাজ উদ্দিন আসিয়া খাতুন কে বিয়ে করেন ।

পরে এক কন্যা আখলিমা জন্ম হওয়ার পর আনুমানিক ১৯৭৫ সনে আমার বড় ভাই মোন্তাজ উদ্দিন মারাযান ১ স্ত্রী আছিয়া খাতুন, এবং ৫ কন্যা ১। জহুরা খাতুন, ২। জমিলা খাতুন, ৩। রাজিয়া খাতুন, ৪। রহিমা খাতুন, ৫। আকলিমা খাতুন, রেখে মারা যান। মারা যাওয়া পর স্ত্রী আছিয়া খাতুন আমার আরেক বড় ভাই মনির উদ্দিন ওরফে মাইন উদ্দিন এর নিকট দ্বিতীয় বিবাহে আবদ্ধ হয়। ৩ কন্যা নাবালিকা থাকায় স্ত্রী এবং কন্যাদের স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি সহ ভরণ পোষনের দায়িত্ব মনির উদ্দিন ওরফে মাইন উদ্দিন গ্রহণ করেন। পরবর্তীতে বি.আর.এস জড়িপের সময় মোন্তাজ উদ্দিনের যাবতীয় তেজ্য ভূমি হইতে যত সামান্ন ভূমি তাহাদের কে দিয়া তাহাদের প্রাপ্য সাকুল্য হিস্যা অংশের ভূমি আমার ও আমার ভাতিজীগনকে না দিয়া অসৎ উদ্দেশ্যে সম্পূর্ন চক্রান্তের আশ্রয় নিয়া তাহার নিজ নামে ও তাহার স্ত্রী সন্তানাধীর নামে গোপনে বি.আর.এস রেকর্ড প্রস্তুত করিয়াছে। যাহা আমি বা আমার উল্লেখিত ভাতিজীগন কোন কিছুই অবগত ছিলাম না।

পরবর্তী সময়ে উক্ত বিষয় আমরা জানিতে পারিয়া বিগত ইং ২০১৪ সনে টের পাইয়া উক্ত বি.আর.এস রেকর্ড সমূহের বিরুদ্ধে বিজ্ঞ জেলা ল্যান্ডসার্ভে আদালতে ৩২৯৭/১৪- ৩৮৯৬/১৪- ৩৮৯৯/১৪- ৩২৯৬/১৪- ৩৮৯৫/১৪- ৩৩০২/১৪-৩৩০১/১৪- ৩৮৯৭/১৪ নং মোকদ্দমা আনায়ন করিয়াছি যাহা বিচারাধীন আছে। অবশ্য একটি মোকদ্দমা আমাদের নামে ডিক্রী হইয়াছে। উক্ত মোকদ্দমা সমূহে জের ধরিয়া উক্ত মনির উদ্দিন ওরফে মাইন উদ্দিন লোকমুখে প্রকাশ করিয়া বেড়াইতেছে যে সে জাল জালিয়াতির মাধ্যে কাগজপত্র সৃজন করিয়াছে। উল্লেখ থাকে যে, ভূমিদস্যু মাইন উদ্দিন উল্লেখিত ল্যান্ডসার্ভে ট্যাইবুনালের ৩২৯৭/১৪ নং মোকদ্দমার সাকুল্য বিষয় জানা স্বত্বেও উক্ত মামলার কোন তোয়াক্কা না করিয়া আমাদের দখলিয় ১.৫০ একর ভূমির মধ্যে অনুমান ৪০-৪৫ শতাংশ ভূমি আরেক ভূমিদস্যু ফারুক আহমেদ এর মাধ্যমে কতক গুন্ডাপান্ডা বাহিনী নিয়া বিগত ইং ২০/০১/২০২৪ সাল তারিখ সকাল অনুমান ১০ ঘটিকার সময় হইতে বালু মাটি ভরাট করিয়া ঘর দরজা নির্মাণ করার প্রস্তুতি নিতেছে। আমরা বারবার বাধা প্রদান করিলেও আমাদেরকে খুনের হুমকি দিয়া
আসিতেছে, আমরা এই ভুমিদস্যুদের এই রূপ আচরণের ভয়ে ভিত হইয়া তাহাদেরকে বিরত রাখিতে পারিতেছি না।
আমরা জনবলে ও অর্থবলে দূর্বল। অত্র অবস্থায় আমরা অত্যান্ত অসহায় ও দুঃখে কষ্টে দিনজাপন করিয়া আসিতেছি।

আমরা অতিসয় মূর্খ ও সহজ সরল লোক পাইয়া উক্ত মোকদ্দমা সমূহ উঠাইয়া আনার জন্য সে ও তাহার ছেলেরা আমাদেরকে খুন খারাবি সহ হেস্তনেস্ত করিবে বলিয়া হুমকি দিয়া আসিতেছে। বিধায় আমাদের পক্ষে এই শক্তিশালি ভূমিদস্যুদের কবল থেকে আমাদের নেয্য প্রাপ্য হিস্যা অংশের ভূমি সঠিক হিস্যা মোতাবেক বুঝিয়া নেওয়ার কোন হেতু উপায় না পাইয়া আপনার কার্যালয়ে দারস্থ হইলাম।

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ