বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২৪

ফেনী, লক্ষ্মীপুর ও চাঁদপুর জেলার ৭৪৫ জন নারী উদ্যোক্তাকে প্রধানমন্ত্রীর স্মার্ট উপহার ল্যাপটপ দিলেন পলক

যা যা মিস করেছেন

ফেনী প্রতিনিধি:

‘হার পাওয়ার’ প্রকল্পের আওতায় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে ল্যাপটপ বিতরণ করা হয়। গতকাল বুধবার সকালে শহরের পিটিআই মাঠ প্রাঙ্গণে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ফেনী জেলা প্রশাসক মুছাম্মৎ শাহীনা আক্তারের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। কোডার্সট্রাস্ট বাংলাদেশের বিভাগীয় প্রধান প্রকৌশলী কাজী তারানার সঞ্চালনায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, তথ্য ও প্রযুক্তি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক(অতিরিক্ত সচিব) মোস্তফা কামাল ও ই-কমার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট শমী কায়সার। এছাড়াও ল্যাপটপ বিতরণী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, ফেনী-১ আসনের সংসদ সদস্য আলাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী নাসিম, ফেনী-২ আসনের সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারী ও ফেনী জেলা পুলিশ সুপার জাকির হাসান। হার পাওয়ার প্রকল্পের আওতায় ফেনী, লক্ষ্মীপুর ও চাঁদপুর জেলার ৭৪৫ জন প্রশিক্ষণার্থীদের মধ্য থেকে বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর জেলার সাবিহা জামান, লক্ষ্মীপুর জেলার ইশরাত জাহান তানজিনা ও ফেনী জেলার চৈতী সাহা। প্রধান অতিথি ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, বিশ্বজয়ের হাতিয়ার একটি স্মার্ট ল্যাপটপ। উপস্থিত প্রশিক্ষণার্থীদের উদ্দেশ্যে প্রধান অতিথি বলেন, চাকুরির পিছনে না ছুটে তোমরা উদ্যোক্তা হয়ে আরো দশজনকে চাকুরী দিতে পারো। একসময়ে বাংলাদেশে যৌতুক ব্যাধি হয়ে উঠেছিল। ১৯৯৬ সালে শেখ হাসিনার যুগান্তকারী সিদ্ধান্তের কারণে নারী শিক্ষার প্রসারসহ যৌতুক প্রথার বিরুদ্ধে সোচ্চার ভূমিকা রাখতে সম্ভব হয়েছে। একসময় বেশিরভাগ পুরুষ প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষকতা পেশায় নিয়োজিত ছিলেন। প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনা ক্ষমতা আসার পর থেকে নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিতকল্পে বর্তমানে প্রাইমারি বিদ্যালয়গুলোতে শতকরা ৬০ শতাংশ নারী শিক্ষকতা পেশায় নিজেদেরকে নিয়োজিত করেছেন।

ফেনী-১ আসনের সংসদ সদস্য আলাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী নাসিম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০৯ সালে ডিজিটাল বাংলাদেশের ঘোষণা দিয়েছিলেন। তখন অনেকে হাস্যরস করেছিল। ১৫ বছর পর প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা করেছেন স্মার্ট বাংলাদেশ। আজকের বিতরণকৃত এক একটি ল্যাপটপ প্রত্যেক  তরুণীকে মাথা উঁচু করে থাকার প্রেরণা যোগাবে। তথ্যপ্রযুক্তিতে অন্য দেশের চেয়ে বাংলাদেশ আজ পিছিয়ে নেই। আগামী ৫ বছরে বাংলাদেশে তথ্যসমৃদ্ধ ছাড়া তথ্যবর্জিত মানুষ থাকবে না বলে জানান তিনি।
ফেনী সদর আসনের সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারী বলেন, স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে স্মার্ট নাগরিকের প্রয়োজন। পুরুষের পাশাপাশি নারীরাও আজ পিছিয়ে নেই। আজ যারা ল্যাপটপ পাচ্ছেন তারা বাংলাদেশ বিনির্মাণে অগ্রণী ভূমিকা রাখবে।

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ