মঙ্গলবার, জুন ১১, ২০২৪

দিন দিন যাত্রী সংখ্যা বাড়তে শুরু করেছে আলোচিত এবং সমালোচিত আনোয়ারা ১৫ নং ঘাটে

যা যা মিস করেছেন

মো,ফখর উদ্দিন,আনোয়ারা (চট্টগ্রাম)ঃ

গত বছরের ২৮ অক্টোবর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টানেল উদ্বোধনের পর থেকেই চট্টগ্রামের আনোয়ারা ১৫নং ঘাটে যানবাহন ও যাত্রীর চাপ কমে গেছিল৷ঘাট এলাকায় এসে দেখা গেছিল নৌকার মাঝিরা মাথায় হাত দিয়ে বসে ছিল৷ছিল না তেমন যাত্রী অন্তত দুঃখের সাথে দিন পার করতে হয়েছে তাদের৷চোখ দিয়ে দেখে থাকতেন রাস্তার দিকে যাত্রী আসতেছে কিনা৷যাত্রী না থাকার ফলে ঘাট এলাকায় অনেকটা থমথমে অবস্থা বিরাজ করেছিল প্রায় মাস খানিক।যাত্রী ও যানবাহনের চাপ না থাকায় ঘাটকেন্দ্রিক ব্যবসা-বাণিজ্য কমে গেছিল।কিন্তু গত বৃহস্পতিবার বিকাল ২টা থেকে ৪টা পর্যন্ত ঘাট এলাকায় অবস্থান করে দেখা যায়, আনোয়ারা ১৫ নং ঘাট এলাকায় যাত্রী চাপ একটু বেড়েছে। দক্ষিন চট্টগ্রামের বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে আসা যাত্রীরা ঘাট এলাকায় এসে ভিড় করতেছে৷এদের মধ্যে বেশির ভাগ যাত্রী ছিল গার্মেন্টস শ্রমিক,ছাত্র ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের চাকরিজীবীরা,তবে তুলনামূলক কম দেখা গেছে বিদেশ যাত্রীদের৷

বিদেশ যাত্রী মোহাম্মদ মহিউদ্দিন বলেন আমি আসার সময় বঙ্গবন্ধু টানেল দিয়ে এসেছি আমার বাড়ি হচ্ছে পারকি৷আমি যাওয়ার সময় যাচ্ছি এই ১৫ নং ঘাট দিয়ে,বিগত পাঁচ বছর যাবত আমি এই ঘাট দিয়ে এয়ারপোর্ট আসা যাওয়া করি৷ঠিক বর্তমানে যাত্রী কম থাকার পরও নৌকার মাঝিদের মুখের ভাষা ভালো হয় নাই ও অতিরক্ত ভাড়া আদায় কমে নাই৷তাদের এই ব্যবহারে আমাদের খবুই কষ্ট লাগে৷

বেশি ভাড়ার আদায়ের বিষয়ে কয়একজন মাঝিদের থেকে জিজ্ঞেস করা হলে তারা অস্বীকার করে জানান আমরা বেশি ভাড়া আদায় করি না৷আমরা জনপ্রতি নির্ধারিত ভাড়া এবং বিদেশ গামী যাত্রীদের লাগেজের ভাড়া নেই৷এতে যদি তাড়া মনে করে বেশি ভাড়া নিচ্ছি এদের এটা ভুল ধারনা৷

১৫ নং ঘটের এক দোকানার কে প্রশ্ন করা হলে বর্তমানে এই ঘাটে যাত্রীর সংখ্যা কেমন? এই প্রশ্নে চায়ের দোকানদার বলেন টানেল উদ্বোধনের পর দোকানে কাষ্টমার ছিল একদম কম বর্তমানে কিছুটা বেড়েছে আমরা মনে করি আমরা আগের অবস্থানে ফিরে আসব৷

সিএনজি চালক হাফেজ বলেন টানেল উদ্বোধনের পর বন্দর সেন্টার থেকে ১৫ নং ঘাটের আমরা মোটেই যাত্রী পাইতামান এমন কি সারাদিন মিলে ২০০ টাকার ভাড়াও পেতাম না৷আলহামদুলিল্লাহ বর্তমানে টানেল দিয়ে এই পারে পার হওয়ার ভাড়া বেশি হওয়ায় আমরা কিছু টা যাত্রী পাচ্ছি আমাদের সংসার ভালোই চলতেছে৷

নৌকা মাঝিরা বলেন আমরা আবার আমাদের আগের রুপে ফিরতে শুরু করেছি৷আশা করি সামনেই যাত্রী সংখ্যা আরও বাড়বে৷

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ