মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২৪

ম্যাক্সওয়েলের ৪৭ বলে সেঞ্চুরিতে অস্ট্রেলিয়ার অবিশ্বাস্য জয়

যা যা মিস করেছেন

এখন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ক্রিজে থাকা মানেই অসম্ভব যেকোনো কিছুকেই সম্ভব বানিয়ে ফেলার আশা। বিশ্বকাপে আফগানিস্তানের বিপক্ষে সেই অবিশ্বাস্য ইনিংসের পর থেকে নিজেকে এমনই উচ্চতায় নিয়ে গেছেন অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার। রুতুরাজ গায়কোয়াড অপরাজিত ১২৩ রান করে ভারতকে ২২২ রানের পাহাড়ে চড়িয়েছিলেন। কিন্তু গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের ৪৭ বলে অপরাজিত ১০৪ রানের তাণ্ডবে সেই বাধা টপকে গেছে অস্ট্রেলিয়া।

ম্যাচটি জিততে শেষ ১২ বলে অস্ট্রেলিয়ার দরকার ছিল ৪৩ রান। ম্যাক্সওয়েল আর ম্যাথু ওয়েড বাউন্ডারির ঝড় তুলে স্বাগতিকদের হতবাক করে দেন। ভারতীয় পেসার প্রসিধ কৃষ্ঞের শেষ চার বলে তিনটি চার ও একটি ছয় হাঁকিয়ে গুয়াহাটির দর্শকদের একেবারে চুপ করিয়ে দেন ম্যাক্সওয়েল।

মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) গুয়াহাটিতে টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ২২২ রান সংগ্রহ করে ভারত। ৫৭ বলে অপরাজিত ১২৩ রান করেন রুতরাজ গায়কোয়াড়।

অজি বোলারদের মধ্যে একটি করে উইকেট পেয়েছেন বেহানড্রফ, হার্ডি ও রিচার্ডসন।

২২৩ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ষষ্ঠ ওভারে অস্ট্রেলিয়ার ২ উইকেট পড়ার পর ম্যাক্সওয়েল যখন ক্রিজে নামেন, অস্ট্রেলিয়ার দরকার ৮৬ বলে ১৫৭ রান। সেখান থেকে ১০ ওভার শেষে হিসাবটা দাঁড়ায় ৬০ বলে ১১৮ রানে, ১৫ ওভার শেষে সমীকরণ ছিল ৩০ বলে ৭৮ রানের। ম্যাক্সওয়েল ততক্ষণে ২৮ বলে অর্ধশতক পেয়ে গেছেন। কিন্তু তখনো অস্ট্রেলিয়ার জয় অনেক দূরের পথ।

দলের ১২৮ রানে মার্কাস স্টয়নিস ফিরে যান, ১৩৪ রানে ফেরেন টিম ডেভিড। শেষ দুই ওভারে অস্ট্রেলিয়ার জয়ের জন্য দরকার ছিল ৪৩ রান, শেষ ওভারে ২১। সেটাও সম্ভব বানিয়ে ফেললেন ম্যাক্সওয়েল। ছেলেদের আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে শেষ ওভারে এর চেয়ে বেশি রান তুলে আর কখনো কোনো দল জেতেনি। ম্যাথু ওয়েডকে নিয়ে ৪০ বলে অবিচ্ছিন্ন ৯১ রানের এক জুটি গড়ে অস্ট্রেলিয়াকে এক অসাধারণ জয় এনে দিলেন ম্যাক্সওয়েল।

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ