বুধবার, জুলাই ২৪, ২০২৪

 গাইবান্ধায় ছাগল খুঁজতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার শিশু

যা যা মিস করেছেন

পলাশবাড়ী(গাইবান্ধা) প্রতিনিধি: গাইবান্ধা সদর উপজেলায় ছাগল খুঁজতে গিয়ে ১০ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।
বুধবার ( ৮ নভেম্বর)  সকালে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন গাইবান্ধা সদর থানার ওসি মাসুদ রানা। এর আগে, মঙ্গলবার (৭ নভেম্বর) বিকেলে সদর থানার মধ্য বানিয়ারজান পশু হাসপাতাল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
ভুক্তভোগী ওই শিশুর স্বজনরা জানান, নানার বাড়িতে থেকে স্থানীয় একটি মাদরাসায় লেখাপড়া করে ওই শিশু। মঙ্গলবার বিকেল ৪টার দিকে তার নানার পালিত ছাগল খুঁজতে বাড়ি থেকে বের হয়ে অভিযুক্ত লাভলু মিয়ার বসতবাড়ির পশ্চিম পার্শ্বে ধানক্ষেতের আইল দিয়ে যাচ্ছিল সে। এ সময় লাভলু তাকে টেনে ধানক্ষেতের মধ্যে নিয়ে ধর্ষণ করে ফেলে রেখে চলে যান। এ সময় শিশুটির কান্না শুনে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে স্বজনদের খবর দেন। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় ওই শিশুটিকে সদর হাসপাতালে নেয়া হয়।
গাইবান্ধা সদর থানার ওসি জানান, শিশুটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য গাইবান্ধা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলাও হয়েছে। অভিযুক্ত ধর্ষককে গ্রেফতারে কাজ করছে পুলিশ।

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

Previous article
Next article
নাশকতার তিন মামলায় বিএনপির ২২ নেতাকর্মীর কারাদণ্ডনাশকতার অভিযোগে রাজধানী মিরপুর থানায় করা পৃথক তিন মামলায় বিএনপির ২২ নেতাকর্মীকে তিন বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। Advertisement বুধবার ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল ইসলামের আদালত এ রায় ঘোষণা করেন। রায়ে কারাদণ্ডের পাশাপাশি ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরও তিন মাস করে কারাদণ্ডের আদেশ দেন আদালত। দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- সাইফুল ইসলাম, বিজয়, মামুন হাসান, হুমায়ন কবীর রওশন, হেলাল মাতুব্বর, হুমায়ন কবীর, রাশেদ ইমাম স্বাধীন, খলিলুর রহমান, এম সগির, বশির, সেলিম, শামীম মোল্লা, মামুন হাসান, মঙ্গল, বিল্লাল হোসেন, কামাল হোসেন, এস এম আশরাফুর রহমান আশরাফ, মনোয়ার হোসেন, আমিন পাটোয়ারী, মফিজুল ইসলাম নয়ন, মানিক ও খোকন। রায় ঘোষণার সময় আসামিরা আদালতে অনুপস্থিত ছিলেন। এ সময় আদালত তাদের বিরুদ্ধে সাজা পরোয়ানাসহ গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। ২০১৩ সালে মিরপুর এলাকায় নাশকতার অভিযোগে মামলা তিনটি করে পুলিশ।

More articles

সর্বশেষ