শনিবার, মে ২৫, ২০২৪

আন্তঃজেলা ও বিভাগীয় চোর চক্রের ৮জনসহ ৩টি গাড়ি উদ্ধার

যা যা মিস করেছেন

তিমির বনিক,মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:

মঙ্গলবার দুপুরের দিকে পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে মৌলভীবাজারের কুলাউড়া থানা পুলিশের অভিযানে চোরাই প্রাইভেটকার উদ্ধার আন্তঃজেলা ও আন্তঃবিভাগীয় চোর চক্রের ২সদস্যসহ গ্রেপ্তার ৮জন আটক করা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনেমৌলভীবাজার পুলিশ সুপার মো: মনজুর রহমান জানান।

কুলাউড়া থানা পুলিশের বিশেষ অভিযানে ৩টি চোরাই প্রাইভেটকার উদ্ধার ও গাড়ি চুরির সাথে জড়িত আন্তঃজেলা ও আন্তঃবিভাগীয় চোরচক্রের ২ সদস্যসহ ৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গত ১০জুলাই রাতব্যাপী অভিযানে কুলাউড়া পৌরসভার মাগুরা এলাকার জসিম উদ্দিন আহমদ আব্দুল হাকিম এর বাসার সামনের রাস্তা থেকে একটি সিলভার রঙের প্রাইভেটকার চুরি হয় । এ ঘটনায় কুলাউড়া থানার মামলা নং-১৩, ১৭ জুলাই দায়ের করা হয়। চুরি ঘটনার পর থেকেই মৌলভীবাজার জেলা পুলিশ চোরাই গাড়ি উদ্ধার ও জড়িতদের গ্রেপ্তারে পুরো সিলেট জোনে অভিযান শুরু করে। এ ঘটনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম এন্ড এ্যপস) সুদর্শন কুমার রায়, কুলাউড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপায় দীপঙ্কর ঘোষ ও কুলাউড়া থানার ওসি আব্দুস ছালেকসহ কুলাউড়া থানার অফিসারদের নিয়ে একটি দল গঠন করা হয়।
কুলাউড়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রতন চন্দ্ৰ দেবনাথ, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই/মোঃ আনোয়ার মিয়া, এএসআই তাজুল ইসলামসহ পুলিশের একটি দল চোরাই প্রাইভেটকার উদ্ধার ও চোর চক্রের সদস্যদের গ্রেপ্তারে অভিযানে নামে।
আজ মঙ্গলবার (১লা আগস্ট) ভোরে প্রথমে অভিযান পরিচালনা করে আন্তঃজেলা ও আন্তঃবিভাগীয় গাড়ী চোর চক্রের সদস্যদের মধ্যে অন্যতম দুর্ধর্ষ গাড়ী চোর মৌলভীবাজার সদর উপজেলার গুজারাই গ্রামের জনৈক আলীম মিয়ার ছেলে শাহ্ আলমকে আটক করা হয়। আটককৃত শাহ্ আলমকে জিজ্ঞাসাবাদে তার দেওয়া তথ্য মতে মৌলভীবাজার সদর উপজেলাধীন বেড়ীরচর এলাকা থেকে আন্তঃজেলা ও আন্তঃবিভাগীয় গাড়ী চোর মৃত ফরকিত মিয়ার ছেলে মুহিবুর রহমান সিতুকে তার নিজ বাড়ী থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। শাহ্ আলম ও মুহিবুর রহমান সিতুকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে তাদের তথ্যমতে সদর উপজেলাধীন আমতৈল ইউপির আদপাশা গ্রামের মুহিবুর রহমান (মিতুর শশুর বাড়ী থেকে গত ১০জুলাই কুলাউড়ার মধ্য মাগুড়া থেকে চুরি হওয়া সিলভার রঙের প্রাইভেট গাড়িটি উদ্ধার পূর্বক জব্দ করা হয়।

এছাড়া গাড়ি চুরি সংক্রান্তে মামলা দায়ের হওয়ার পর থেকে গাড়ী উদ্ধার অভিযান পরিচালনাকালে আরোও ২টি চোরাই প্রাইভেটকার উদ্ধার করা হয়। এসব গাড়ি চুরির সাথে জড়িত আন্তঃজেলার গাড়ী চোরচক্রের সদস্য- তোফায়েল মিয়াকে সিলেট, আব্দুল আলীম ও মহিউদ্দিনকে হবিগঞ্জের মাধবপুর , জসিম মিয়া- কসাই জসিমকে মৌলভীবাজার সদর, আবুল হোসেনকে কমলগঞ্জের শমশেরনগর, কয়েছ মিয়াকে রাজনগর থেকে বিভিন্ন সময়ে গ্রেপ্তার করা হয়। গাড়ী চোর চক্রের অন্যান্য সদস্যদের গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান অব্যাহত আছে।

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ