সোমবার, জুলাই ২২, ২০২৪

হাওর পাড়ের সেই স্কুলটি রেকর্ড গড়া রেজাল্ট করলো

যা যা মিস করেছেন

মোঃ শামীম আলম, মোহনগঞ্জ প্রতিনিধি।

নেত্রকোনা জেলার মোহনগঞ্জ উপজেলার আদর্শনগর বাজারে সদ্য প্রতিষ্ঠিত হয় সৃজন আইডিয়াল স্কুল। স্কুলটি ২০১৭ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠার শুরু থেকেই পড়াশোনা থেকে শুরু করে বিভিন্ন জাতীয় দিবস সহ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করে আসছে। ঐ স্কুলের শিক্ষকেরা বলেন শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার পাশাপাশি মন কে সতেজ রাখতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সহ শিক্ষা সফর করে থাকে। স্কুলটির কতৃপক্ষ এসব কাজের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের পড়াশোনায় মন বসিয়ে শিক্ষার মান বাড়িয়ে চলছিলো। কিন্তু হঠাৎ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে স্কুলটি বন্ধ হয়ে যায়। তারপর সাধারণ মানুষের এবং শিক্ষার্থীদের অনুরোধ এ স্কুলটি আবার চালু করার নির্দেশ দেন আপিল বিভাগের বিচারপতি ওবায়দুল হাসান শাহীনের পরামর্শে হাই কোর্টের রিটের মাধ্যমে স্কুলটি আবার তাদের কার্যক্রম শুরু করে। প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকে যদি রেজাল্ট হচ্ছেঃ ২০২০ সালে প্রথম সৃজন আইডিয়াল স্কুল থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে ২২ জন শিক্ষার্থী এবং সর্বোচ্চ জিপিএ ৪.৯৪ সহ শতভাগ পাশের কৃতিত্ব অর্জন করেন। ২২ জনের মধ্যে ১১ জন এ গ্রেড পেয়েছিল। প্রথম বছরেই এমন ফলাফলের পর পরবর্তী বছরে আরও বাজিমাত করে সুবিধাবঞ্চিত এই বিদ্যালয়টি। ২০২১ সালে এসএসসি পরীক্ষায় ২৯ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে শতভাগ পাশের রেকর্ড সহ ২ জিপিএ ৫ পাওয়ার কৃতিত্ব অর্জন করে। বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতার কারনে ২০২২ সালে প্রতিষ্ঠানটিতে এসএসসি পরীক্ষার্থী শিক্ষার্থীই ছিল না। পরীক্ষার আগে কিছু শিক্ষার্থীদের বাড়ি থেকে খোঁজে খোঁজে আনা হয়েছিল যারা নবম শ্রেণিতে রেজিষ্ট্রেশন করেছিল। এমন ৮ জনকে পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ করে দিলে ৫ জন কৃতকার্য হয়। সবচেয়ে চমক দেখিয়েছে সদ্য এসএসসির ফলাফলে যা সকলকেই ছাড়িয়ে গিয়েছে। ২০২৩ সালে সৃজন আইডিয়াল স্কুল থেকে মোট শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন ৫১ জন। যার মধ্যে ২জন গোল্ডেন এ+ সহ মোট ৯ জন এ+, ২৫ জন এ গ্রেডসহ শতভাগ পাসের অনন্য রেকর্ড করেন। ২০২৩ সালের এসএসসি পাশ করা শিক্ষার্থীরা ২০১৭ সালে ক্লাস সিক্সে ভর্তি হয়েছিলো। স্কুলটির প্রতিষ্ঠাতা আজিজুল হক বলেছেন এই রেজাল্ট আমাদের প্রাপ্য ছিল তা আমরা পেয়েছি। আমরা চেষ্টা করব এই ধারা অব্যাহত রাখতে। এই স্কুলেরই শিক্ষক মেহেদী হাসান দ্বীপ বলেন, আমাদের স্কুলের রেজাল্ট আরো ভালো হতো। ভালো না হওয়ার একটাই কারণ বিভিন্ন ঝড় ঝাপটার মধ্যে দিয়ে অতিবাহিত হয়েছে দিন গুলো। শত ঝড়ের মধ্যেও আমরা আমাদের শিক্ষার্থীদের সবোর্চ্চটাই তাদের দেওয়ার জন্য চেষ্টা করেছি। আমাদের একটাই দাবি আমাদের এই স্কুলের দিকে প্রসাশনের বিশেষ দৃষ্টি দেওয়ার জন্য যাতে করে এই স্কুলটিকে নিয়ে আরো সামনে এগিয়ে যেতে পারি। স্থানীয় লোকজনের সাথে কথা বলে জানতে পারি তারা বলেন, সরকার যদি তাদের এই স্কুলের দিকে বিশেষ নজর দেয় তাহলে এই স্কুলের শিক্ষার্থীরা ভালো রেজাল্ট করতে পারবে এবং শিক্ষর মান আরো উন্নয়ন হবে। তারা আরো বলেন এই স্কুলে শুধু পড়াশোনায় না খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিকভাবে অনেক এগিয়ে আছে। সাধারণ জনগণ বলেন এই স্কুলের রেজাল্ট নিয়ে সবাই গর্বিত।

অনুমতি ব্যতিত এই সাইটের কোনো কিছু কপি করা কপিরাইট আইনে দণ্ডনীয়।

প্রিয় পাঠক অনলাইন নিউজ পোর্টাল দ্যামেইলবিডি.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন themailbdjobs@gmail.com ঠিকানায়।

More articles

সর্বশেষ