যশোরে ছাত্রদলের ৪৪তম প্রতিষ্ঠাতে গণ জমায়েত ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত

0
42

স্বীকৃতি বিশ্বাস, যশোরঃ  সোমবার (২ জানুয়ারি) বাংলাদেশ জাতীয়তাবদী ছাত্রদলের ৪৪ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে জেলা কার্যালয়ের সামনে ছাত্রদল আয়োজিত গণজমায়েত ও ছাত্র-সমাবশে অনুষ্ঠিত হয়।

সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান বাপ্পি ও সাংগঠনিক সম্পাদক শাহনেওয়াজ ইমরানের যৌথ পরিচালনায় ও জেলা ছাত্রদলের সভাপতি রাজিদুর রহমানের সাগরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত গণ জমায়েত ও ছাত্র সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির বিশেষ সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন।বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির খুলনা বিভাগীয় ভারপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিত,সচিব অ্যাড. সৈয়দ সাবেরুল হক সাবু,জেলা বিএনপির যুগ্ম-আহ্বায়ক দেলোয়ার হোসেন খোকন, সদস্য আব্দুস সালাম আজাদ, সিরাজুল ইসলাম প্রমূখ।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের যুগ্ম-সম্পাদক সোহানুর রহমান শামীম, ছাত্রদল নেতা সুমন আহমেদ,আলমগীর হোসেন লিটন,রাজিবুল হক তুর্য,আজিজুর রহমান,আশরাফুল আলম রানা, শামীম রেজা,নাইম উদ্দিন, ইমন হোসেন, নাফিজ ইকবাল ইশা,তরিকুল ইসলাম, রফিকুল ইসলাম,ওলিয়ার রহমান,কামরুজ্জামান প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির বিশেষ সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন বলেছেন-আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় থেকে দেশ ধ্বংস করছে। আর বিএনপির দেশ বাঁচানোর জন্য আন্দোলন করছে। আওয়ামী লীগ দেশ টাকে মগের মুল্লুক বানিয়েছে।একদিকে সীমাহীন লুটপাট,দুর্নীতি আর অর্থ পাচারের করে দেশটাকে ধ্বংস করে দিয়েছে। অন্যদিকে গুম খুন, নির্যাতন নিপীড়নের মধ্য দিয়ে গোটা দেশটাকে কারাগারে পরিণত করেছে। আজকে তারা রঙিন খোয়াব দেখছে আরেকটি একতরফা কিংবা ভোট ডাকাতি নির্বাচন করে ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য । কিন্তু আওয়ামী লীগের রঙিন খোয়াব কোন দিন পূরণ হবে না। আমরা শহীদ জিয়ার সৈনিক আমরা আপোষহীন নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সৈনিক শেখ হাসিনার অধীনে বাংলাদেশের মাটিতে আর কোন নির্বাচন হতে দেওয়া হবে না।জুলমবাজদের সাথে অতীতে কোন আপোষ হয়নি আগামীতেও হবে না

উল্লেখ্য ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে সমাবেশটি নেতাকর্মীদের ব্যাপক উপস্থিতির মধ্য দিয়ে জন সমুদ্রে পরিণত হয়। জেলা ছাত্রদলের অধীনস্থ সকল ইউনিটের নেতাকর্মীরা ব্যানার,ফেস্টুন,প্ল্যাকার্ড নিয়ে মিছিল সহকারে সমাবেশে যোগ দেন। সমাবেশ শুরুর বেশ আগে থেকে লালদিঘিসহ গোটা এলাকা দলীয় নেতাকর্মীদের সরব উপস্থিতির মধ্য দিয়ে কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here