আলোচনার মাধ্যমেই শিক্ষার্থীদের সব সমস্যার সমাধান করা হবে: শিক্ষামন্ত্রী – দ্যা মেইল বিডি / খবর সবসময়
Lead Newsজাতীয়বাংলাদেশশিক্ষাশিক্ষা সংবাদসরকার

আলোচনার মাধ্যমেই শিক্ষার্থীদের সব সমস্যার সমাধান করা হবে: শিক্ষামন্ত্রী

শাবিপ্রবির উপাচার্যর চলে যাওয়াই কোন সমাধান নয়, শিক্ষার্থীদের সমস্যাগুলো চিহ্ণিত করে আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করাই মূল লক্ষ্য বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মণি।

সন্ধ্যায় রাজধানীর হেয়ার রোডে তার সরকারী বাসভবনে সাংবাদিকদের সাথে আলাপ কালে এসব কথা বলেন তিনি। এ সময় তিনি আরো বলেন সমস্যা খতিয়ে দেখতে গিয়ে কারও যদি কোন সংশ্লিষ্টতা পাওয়া যায় সে যেই হোক না কেন তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এই আন্দোলনের মধ্য দিয়ে সারা বাংলাদেশের সকল বিশ্ববিদ্যালয়ের সমস্যা চিহ্ণিত করে তারও সমাধান করা হবে।

আন্দোলন প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘পুরো বিষয়টি নিয়ে গত কয়েকটা দিন তাদের সঙ্গে নানাভাবে আমরা সম্পৃক্ত থেকেছি। অনশন যারা করছিলেন এবং যারা আন্দোলন করছিলেন সবাই মিলে আমরা এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছি, শিক্ষার্থীরা যারা এই অবরোধ কর্মসূচিতে রয়েছেন সেটি তারা তুলে নিবেন এবং আন্দোলনের ইতি এখানেই টানবেন। এই অর্থে এখন আর আন্দোলন করবেন না, তবে তারা যে অর্থে আন্দোলন করেছেন সেই কারণগুলো আমরা অ্যাড্রেস করব এবং সমাধান করব।’

দীপু মনি বলেন, ‘এই সময়ে শিক্ষার্থীরা যে আন্দোলন করেছেন অত্যন্ত শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করেছেন। নিঃসন্দেহে তারা এজন্য সাধুবাদ পাওয়ার যোগ্য। তবে একটা সময় আমরা দেখেছি (ভিসির বাসভবনের) বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। এ বিষয়টি নিয়ে আমরা খুব উদ্বিগ্ন ছিলাম।’

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, শিক্ষার্থীদের আন্দোলন যৌক্তিক। এক পর্যায়ে পুলিশি অ্যাকশন হয়েছে। একটি দুঃখজনক। অনেক শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন। অনশনের অষ্টম দিন আজ সকালে তারা অনশন ভেঙেছেন, এ কারণে তাদের সাধুবাদ জানাই।

যারা আন্দোলন করছেন তাদের সঙ্গে আমাদের কথা হয়েছে। আমরা তাদের সকল দাবি বাস্তবায়ন করব। যে বা যারাই অপরাধী হোক তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যে কারণে আন্দোলন করেছে সে সকল দাবির পক্ষে আমরাও। আমরা সমস্যার সমাধান করব। আমরা আনন্দিত তারা শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করেছেন। সমস্ত সমস্যার সমাধান করতে চাই, তাতে তারা আমাদের সঙ্গে যুক্ত হয়ে কাজ করবেন।’

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, শিক্ষার্থীদের আন্দোলন যৌক্তিক তাদের সব দাবি-দাওয়া বাস্তবায়ন করবো।

শিক্ষক-শিক্ষার্থী, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন, সরকার সবাই একপক্ষ। এখানে দুইপক্ষ বলে কিছু নেই। আন্দোলনে থাকা শিক্ষার্থীরা মানসিকভাবে কিছুটা ভেঙে পড়েছেন। তারা একটু গুছিয়ে উঠুক। যারা আন্দোলনের কারণে অসুস্থ হয়েছেন তারা সুস্থ হয়ে উঠুক। কিছুদিন পর আমরা সেখানে যেতে পারি। শিক্ষার্থীরা চাইলে আমরা যে কোনো সময় আলোচনায় বসতে পারি।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আন্দোলনের কারণ ও সমস্যা সকল বিষয় খতিয়ে দেখা হবে। এতে যেই অপরাধী হোক তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মাধ্যমে কিছু সমস্যা আমাদের সামনে উঠে এসেছে। আমরা তা খুঁজে বের করে সমাধান করার সুযোগ পেলাম। সবাই মিলে সেসব সমস্যার সমাধান করা হবে। এটি শুধু শাবিপ্রবিতে নয়, অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ে আবাসনসহ নানা ধরনের সমস্যা রয়েছে, সেগুলোও সমাধান করা হবে।

মামলার বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমি শুনেছি শাবির কয়েকজন শিক্ষার্থীর নামে মামলা হয়েছে। তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এখনো যদি কেউ আটক থাকে তবে সেটি আমরা খোঁজ-খবর নিয়ে সমাধান করবো। শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনা করে এসব সমস্যা সমাধান করা হবে।

উপাচার্যকে সরানো হবে কিনা জানতে চাইলে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, একজন উপাচার্যকে সরালে আরেকজন উপাচার্য আসেন। রাষ্ট্রপতির মাধ্যমে উপাচার্য নিয়োগ পান। তাই তাকে সরাতে হলে একটি প্রক্রিয়া রয়েছে। তাকে রাখা যায় কিনা বা সরানো হবে কিনা—শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে সে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। সকলের প্রচেষ্টায় শিক্ষার্থীদের অনশন ভাঙানো হয়েছে।

দ্যা মেইল বিডি/খবর সবসময়

Show More

এই বিভাগের আর খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close