সাফের উদ্বোধনী ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে ১-০ গোলে হারিয়ে শুভ সূচনা বাংলাদেশের - দ্যা মেইল বিডি / খবর সবসময়
Lead Newsখেলাধুলাফুটবলবাংলাদেশ

সাফের উদ্বোধনী ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে ১-০ গোলে হারিয়ে শুভ সূচনা বাংলাদেশের

শুক্রবার মালদ্বীপের রাজধানি মালির ন্যাশনাল ফুটবল স্টেডিয়ামে টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে শ্রীলংকাকে ১-০ গোলে হারিয়ে সাফ ফুটবলে শুভ সূচনা করেছে বাংলাদেশ। ম্যাচের ৫৬ মিনিটে পেনাল্টি থেকে বাংলাদেশের হয়ে জয়সূচক একমাত্র গোলটি করেন ম্যাচ সেরার পুরস্কার পাওয়া  তপু বর্মন।

বাংলাদেশী সমর্থকের উপস্থিতিতে  মালির স্টেডিয়ামটিই যেন এখ খন্ড বাংলাদেশে পরিণত হয়েছিল আজ। লাল সবুজের সমর্থনে এ সময় বিপুল সংখ্যক বাংলাদেশী স্লোগানে স্লোগানে মুখরিত করে রাখে মালদ্বীপের স্টেডিয়াম। দর্শকদের ওই সমর্থন ব্যর্থ হতে দেয়নি জামাল ভুঁইয়ার দল। জয় নিয়েই মাঠ ছেড়েছে তারা।

ম্যাচের ৯ম মিনিটেই গোলের সুযোগ পেয়েছিল বাংলাদেশ। বক্সের মাঝামাঝি থেকে তপু বর্মনের বাঁ পায়ের শটের বলটি বাঁ দিকে ডাইভ দিয়ে আটকে দেন শ্রীলংকান গোলরক্ষক পেরেরা। ম্যাচের ২০ মিনিটে গোলের সুযোগ সৃস্টি করে শ্রীলংকা। বক্সের বাইরে থেকে নিকোলাস হর্ষ ফার্নান্দোর ডান পায়ের শটের বল বারের বাইরে দিয়ে চলে যায়।

বাংলাদেশ ফের গোলের সুযোগ হারায় ২৯ মিনিটে। বিপলু আহমেদের পাস থেকে রাকিব হোসেনের ডান পায়ের শটের বলটি লক্ষ্যভ্রস্ট হয়। পরের মিনিটে ফের গোলের সুযোগ সৃস্টি করে লাল সবুজ শিবির। বিশ^নাথ ঘোষের পাস থেকে বল পেয়ে মোহাম্মদ জুয়েলের শট বারের উপর দিয়ে বাইরে চলে যায়। বিরিতর অতিরিক্ত সময়ে ইয়াসিন আরাফাতের ক্রসের বলে তপু বর্মন হেড নিলেও সেটি জাল স্পর্শ না করেই বারের উপর দিয়ে বাইরে চলে গেলে ফের সুযোগ  হারায় বাংলাদেশ। ফলে সফলতা ছাড়াই বিরতিতে যেতে হয় বাংলাদেশকে।

বিরতি থেকে ফিরেও আক্রমন অব্যাহত রাখে বাংলাদেশ। এরই সুফল হিসেবে গোল খরা দূর হয় ৫৬তম মিনিটে। বাংলাদেশ দলের একটি আক্রমন প্রতিহত করতে গিয়ে বক্সের মধ্যেই হ্যান্ডবল করেন লংকান ডিফেন্ডার যোগেন্দ্র ডাকসন পুসলাস। ফলে পেনাল্টির নির্দেশ দেন কর্তব্যরত সিরিয়ান রেফারি ফেরাস তাওয়েল। স্পট কিক থেকে ডান পায়ের দারুন শটে গোল করতে ভুল করেননি তপু বর্মন (১-০)।

৬১ মিনিটে বিপলু আহমেদের কাছ থেকে বল পেয়ে অধিনায়ক জামাল ভুঁইয়া বক্সের বাইরে জোড়ালো শট নিলে সেটি অল্পের জন্য গোলবারকে পাশ কাটিয়ে চলে যায়।

৭৫ মিনিটে গোল পরিশোধের ভাল একটা সুযোগ পেয়েছিল শ্রীলংকা। বক্সের বাইরে থেকে ডিলন ডি সিলভার ফ্রি কিকের বল অল্পের জন্য জালে জড়ায়নি। এই সময় গোল পরিশোধের জন্য মরিয়া লংকান দল প্রানপন চেস্টা করেছিল সমতায় ফেরার। তবে ফিনিশারের অভাবে সফল হতে পারেনি দেশটি। শেষ ভাগে এসে বাংলাদেশও পরপর কয়েকটি সুযোগ হাতছাড়া করেছে।

টুর্নামেন্টে পরের ম্যাচে শক্তিশালী ভারতের মোকাবেলা করবে লাল সবুজের দল। ৪ অক্টোবর সোমবার একই ভেন্যুতে অনুষ্ঠিত হবে ম্যাচটি। এরপর ৭ অক্টোবর স্বাগতিক মালদ্বীপের মোকাবেলা করবে বাংলাদেশ। লীগ পর্বের শেষ ম্যাচে ১৩ অক্টোবর বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ নেপাল।

লিগের শীর্ষ পয়েন্টধারী দুটি দল ফাইনালে খেলার সুযোগ পাবে। আগামী ১৬ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে ফাইনাল ম্যাচ।

দ্যা মেইল বিডি/খবর সবসময়

Show More

এই বিভাগের আর খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close