প্রেমের স্বীকৃতি না পেয়ে নিজের গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন - দ্যা মেইল বিডি / খবর সবসময়
সারা বাংলা

প্রেমের স্বীকৃতি না পেয়ে নিজের গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন

স্টাফ রিপোর্টার : নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলায় পরকীয়া প্রেমের স্বীকৃত না পেয়ে নিজের গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন দিয়েছে স্বামী পরিত্যক্তা (২৭) নামে এক নারী। বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টার দিকে উপজেলার সান্দিকোনা ইউনিয়নে আটিগ্রামে দিলু মিয়ার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। আহত একই ইউনিয়নের ছেংজানা গ্রামের সুরুজ আলী মেয়ে। পেট্রোলের আগুনে নারীর মুখমন্ডল ও দুই হাতসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ৩০ শতাংশের বেশি পুড়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়দের সূত্রে জানা যায়, আহত ওই নারীর একাধিক বিয়ে হয়েছে। সম্প্রতি সান্দিকোনা ইউপির পাইমাস্কা গ্রামের দুলাল মিয়ার ছেলে জামাল মিয়ার সাথে সর্বশেষ বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিনের মাথায় দাম্পত্যকলহ দেখা দিলে শেষ পর্যন্ত মামলা-মোকদ্দমায় গড়ায়। মামলা হওয়ার পর জামাল মিয়া দেশের বাহিরে চলে যান। ওই নারীর মামলা-মোকদ্দমা সহায়তা করতে গিয়ে আটিগ্রাম গ্রামের মৃত আব্দুর রহিমের ছেলে দেলোয়ার ওরফে দিলু মিয়ার সাথে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

আরও জানা যায়, এদিকে দিলু মিয়া পাঁচ সন্তানের জনক। গত কোরবানি ঈদের পরে তিনি একটি হত্যা মামলায় আসামী হয়ে পলাতক ছিলেন। গত কয়েকদিন আগে হাইকোর্ট থেকে আগাম জামিন নিয়ে বাড়িতে এসেছেন। ওই নারী চট্টগ্রামে একটি পোশাক কারখানা চাকুরী করতেন। দিলু মিয়া বাড়িতে আসার খবর পেয়ে গত বুধবার ওই নারী বাড়িতে আসেন। প্রেমের স্বীকৃতি আদায়ের লক্ষ্যে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে দিলু মিয়ার বাড়ি যান। বাড়ির উঠানে ঢুকে ওই নারী নিজের শরীরে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন। পরে বাড়ির লোকজন আগুন নিভিয়ে কেন্দুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

ঘটনার পরপরই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মনিরুল ইসলাম, কেন্দুয়া সার্কেল এএসপির জোনাঈদ আফ্রাদ ও থানার ওসি কাজী শাহ নেওয়াজ।

কেন্দুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) সৈয়দ আব্দুল্লাহ গালিব জোবায়ের বলেন, মহিলার মুখমন্ডল, দুই হাতসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ৩০ শতাংশের বেশি পুড়েছে।

কেন্দুয়া থানার ওসি কাজী শাহ নেওয়াজ বলেন, ঘটনা জানার পরপরই হাসপাতালে গিয়ে ভিকটিমের সাথে কথা বলেছি। হাবিবা জানিয়েছে দিলু মিয়ার সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সম্প্রতি তাদের সম্পর্কের কিছুটা অবনতি ঘটেছে। প্রেমের স্বীকৃত আদায়ের জন্য এই কান্ড ঘটিয়েছে ওই নারী। এব্যাপারে মামলা দায়ের প্রস্তুতি চলছে জানান তিনি।

Show More

এই বিভাগের আর খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close