বিলুপ্ত প্রজাতির লজ্জাবতী বানর বনে অবমুক্ত - দ্যা মেইল বিডি / খবর সবসময়
প্রকৃতি-পরিবেশসারা বাংলা

বিলুপ্ত প্রজাতির লজ্জাবতী বানর বনে অবমুক্ত

নেত্রকোনায় প্রথমে ভাল্লুক ভেবে উদ্ধার, পরে জানায় বিলুপ্ত প্রজাতির লজ্জাবতী বানর

কে. এম. সাখাওয়াত হোসেন (স্টাফ রিপোর্টার) : নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলায় বিলুপ্ত প্রজাতির লজ্জাবতী বানর উদ্ধারের পরে বনে অবমুক্ত করা হয়েছে। রবিবার সকল ৮টা দিকে বানরটিকে উদ্ধারের পর উপজেলার বন কর্মকর্তা সাইদুল ইসলামের সহায়তায় সকাল ১০টায় গোপালপুর বনে অবমুক্ত করা হয়।

খাদ্যের সন্ধানে বন ছেড়ে লোকালয়ে এসে পথ হারিয়েছে লজ্জাবতী বানরটি এমন ধারনা স্থানীয়দের।

জানা যায়, দুর্গাপুরের সদর ইউনিয়নের আগাড় গ্রামে সোমেশ^রী নদীর চরে প্রাণীটিকে দেখে স্থানীয় ছেলে মেয়েরা দৌঁড়াতে থাকে। এ সময় ওই গ্রামের নুর হোসেনের ছেলে আমিন খান (২৮) ড্রেজারের কাছে স্থাপিত বাঁশ দেখতে যাচ্ছিলেন। ছেলে মেয়েদের দৌঁড়-ঝাপ দেখে বিলুপ্ত প্রাণিটিকে উদ্ধার করেন তিনি। প্রাণীটিকে দেখার জন্য নদীর চরে উৎসুক জনতার ভিড় বাড়তে থাকে। পরে আমিন খান স্থানীয় বন কর্মকর্তাকে ফোনে বিষয়টি জানান।

এরপর তিনি উপজেলার প্রাণী রক্ষাকারী সংগঠন সেভ দ্যা এনিমেল অফ সুসংয়ের সদস্য ও সাংবাদিক নিয়ে সকাল ১০টায় দুর্গাপুর সদর ইউনিয়নে গোপালপুর বনে অবমুক্ত করেন বিলুপ্ত প্রজাতির লজ্জাবতী বানরটিকে।

এসময় বালু শ্রমিক আমিন খান বলেন, প্রথমে ভেবেছিলাম ভাল্লুকের বাচ্চা। বন বিভাগের কর্মকর্তা সাইদুল ইসলাম তিনি নিশ্চিত করেন এটি লজ্জাবতী বানর। প্রাণিটি খুবই শান্ত প্রকৃতির। তাকে ধরার সময় আমাকে আঘাত করেনি। সকলের সহযোগিতায় প্রাণীটিকে অবমুক্ত করতে পেরে খুবই ভাল লাগছে।

(ছবি সংযুক্ত এবং ভিডিওতে শেষের দিকে কালা শার্ট পাড়া বালু শ্রমিক আমিন খানের বক্তব্য)

Show More

এই বিভাগের আর খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close