আশুলিয়ার ব্যাংক ডাকাতির ঘটনায় আনসারুল্লাহ বাংলাটিমের ৬ সদস্যকে মৃত্যুদণ্ড

0
332

Asulia the mail bd

রাজধানীর অদূরে আশুলিয়ার জামগড়া বাজারে কমার্স ব্যাংকে ফিল্মি স্টাইলে ডাকাতির ঘটনায় দায়ের করা মামলায় আনসারুল্লাহ বাংলাটিমের ৬ সদস্যকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়াও বিচারক একজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে দণ্ডিত করেছেন। 

মঙ্গলবার (৩১ মে) ঢাকার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক এস এম কুদ্দুস জামান এ রায় ঘোষণা করেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- বোরহান উদ্দিন, সাইফুল ওরফে আল-আমিন, মিন্টু প্রধান, মো. জসীম উদ্দিন, মো. মাহফুজুল ইসলাম ওরফে সুমন ও পলাশ ওরফে সোহেল রানা। রায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানাও করা হয়েছে। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের মধ্যে পলাশ পলাতক রয়েছেন।

রায়ে উকিল হাসান নামে এক আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং একই সঙ্গে তাকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরো ২ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন বিচারক।

এছাড়া আব্দুল বাতেন ও শাহজাহান জমাদারের তিন বছর কারাদণ্ড এবং তিন হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। জরিমানা না দিলে আরও এক মাস কারাভোগ করতে হবে তাদের। মামলায় খালাস পেয়েছেন বাবুল সরদার ও মোজাম্মেল হক।
এর আগে গত ২৫ মে রাষ্ট্রপক্ষ ও আসামিপক্ষের আইনজীবীদের যুক্তি-তর্ক শেষে রায় ঘোষণার জন্য এই দিন ধার্য করে দেন।
মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, গত বছর ২১ এপ্রিল দিনেদুপুরে আশুলিয়ায় বাংলাদেশ কমার্স ব্যাংকে দুর্ধর্ষ ডকাতির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ডাকাতদের গুলি এবং চাপাতির আঘাতে নিহত হন, ওই ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপক ওয়ালীউল্লাহ, দুই নিরাপত্তা প্রহরী কাজী বদরুল আলম ও ইব্রাহীম, ব্যাংকের গ্রাহক সাহাবুদ্দিন পলাশ, স্থানীয় ব্যবসায়ী নূর মোহাম্মদসহ ৮ জন।

 ডাকাতরা ৬ লাখ ৮৭ হাজার ১৯৩ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। পালিয়ে যাওয়ার সময় বোরহান উদ্দিন ও সাইফুল নামের ২ ডাকাতকে জনগণ হাতেনাতে ধরে ফেলে গণপিটুনি দেয়। এদের একজন ঘটনাস্থলে নিহত হয়। গনপিটুনিতে আহত অন্যজনের  স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে বাবুল সরদার ও মিন্টু প্রধানকে আটক করে পুলিশ।

এ ঘটনায় জেএমবির একাধিক সদস্যসহ ৭ জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here