মাত্র ৫ মিনিটেই কমে যাবে যন্ত্রণাদায়ক মানসিক চাপ

0
491

Tension 2 the mail bd

মানসিক চাপ মানুষের অনেক যন্ত্রণাদায়ক ব্যাপার।  কোনো কাজই ঠিকমতো করা সম্ভব হয় না মানসিক চাপে থাকলে ।  বরং সব কাজ এবং সব কিছুকেই অনেক বেশি ঝামেলার মনে হয়।  সব কিছু অসহ্য লাগতে থাকে।  অনেকে এই সময় খিটমিটে মেজাজে আপন মানুষগুলোর সাথে তুমুল ঝগড়া বাঁধিয়ে ফেলেন।  এতো কিছু না করে কিছু ছোট্ট কাজ করে নিন।  মাত্র ৫ মিনিটেই কিন্তু কমে যাবে যন্ত্রণাদায়ক মানসিক চাপ।

১) একটি কলা বা আলু খেয়ে ফেলুন : মানসিক চাপ কমাতে সব চাইতে বেশি সহায়তা করে পটাশিয়াম।  কলা এবং আলুতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম যা খুব দ্রুত মানসিক চাপ কমাতে সহায়তা করে।

২) একটি প্রাণী পুষুন : বিড়াল, কুকুর এবং মাছ জাতীয় প্রাণী পুষুন।  এটি মানসিক চাপ তাৎক্ষণিকভাবে কমিয়ে দিতে বেশ সহায়তা করে।  এদের কর্মকাণ্ড দেখতে দেখতে আপনি ভুলেই যাবেন কোন কারণে আপনি চাপে ছিলেন।

৩) জোরে জোরে কবিতা আবৃতি বা পছন্দের গান করুন : নিজের মানসিকচাপ কমাতে অনেক বেশি কার্যকর নিজের পছন্দের জিনিসগুলোই। যখন খুব বেশি অসহ্য মনে হতে থাকবে সবকিছু তখন জোরে জোরে নিজেকে শুনিয়ে পছন্দের গান বা কবিতা আবৃতি করুন।

৪) যে কারণে মানসিক চাপ হচ্ছে সে কারণটিকে কিছুক্ষণ বকে নিন : নিজের মনে মনেই মানসিক চাপের কারণটিকে বকে দিন আচ্ছা মতো। ভাবছেন খুব বেশি ছেলেমানুষি?  হতে পারে, কিন্তু এটি অনেক বেশি কার্যকর।  কারণ এতে করে আপনার মনের নেতিবাচক প্রভাব কেটে যাবে।

Tension the mail bd

৫) যোগ ব্যায়াম করা চেষ্টা করুন : যোগ ব্যায়ামের ক্ষমতা সম্পর্কে অনেকেই ধারণা রাখেন না।  মাত্র ৫ মিনিটের যোগ ব্যায়াম মানসিক প্রশান্তি আনার জন্য যথেষ্ট।  নিরিবিলি জায়গা খুঁজে ৫ মিনিটের জন্য বসে যান যোগ ব্যায়ামে।  মানসিক চাপ দূরে পালাবে।

Tension 3 the mail bd

৬) শরীরে সমস্ত জোর খাটিয়ে চিৎকার দিন : বলুন তো রোলার কোস্টার কিংবা ভয়ের কোনো রাইডে উঠলে মানুষ চিৎকার করে কেন? চিৎকার এমন একটি ইমোশন যা আমাদের ভেতরের নার্ভাসনেস দূর করতে সহায়তা করে।  সেই সাথে মনের ওপর এর প্রভাবও।  তাই মানসিক চাপ খুব বেশি অসহ্য হয়ে গেলে চিৎকার করুন।

৭) গাছের দিকে একটানা তাকিয়ে থাকুন খানিকক্ষণ : সবুজ রঙ এবং প্রকৃতি দুটোই আমাদের মস্তিষ্কের নিউরনের জন্য ভালো।  এটি আমাদের মস্তিষ্ককে রিল্যাক্স হতে সহায়তা করে।  তাই মানসিক চাপ দূর করতে গাছের দিকে তাকিয়ে থাকুন কিছুক্ষণ।

৮) ছবি আঁকার চেষ্টা করুন : আপনাকে বড় কোনো আঁকিয়ে হতে বলা হচ্ছে না।  নিজের মনের অনুভূতি নিজের মতো করে প্রকাশ করে ফেললে অনেকটা চাপ কমে যায়।  আর সেকারণেই আঁকতে পারেন ছবি।

৯) বেলুন ফোলান : বেলুন ফোলানোর জন্য আপনার একবার জোরে শ্বাস নিতে হবে এবং প্রয়োজন অনুযায়ী ছাড়তে হবে।  এর ফলে শ্বাসপ্রশ্বাসের অনেক ভালো ব্যায়াম হয়।  এতে করে মাংসপেশি ও মস্তিষ্ক রিল্যাক্স হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here