থেমে গেল বাংলাদেশ যুব দলের স্বপ্নযাত্রা

0
303

Bangladesh cricket team the mail bd

সেমিফাইনালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে ৩ উইকেটে হেরে গেছে স্বাগতিক বাংলাদেশ।  এর ফলে প্রথমারের মতো অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠার যে স্বপ্ন দেখেছিল যুব টাইগাররা, তা থেমে গেল।

বৃহস্পতিবার মিরপুর শের-ই বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে বাংলাদেশের বেধে দেয়া ২২৭ রান ৮ বল হাতে রেখে ৭ উইকেট খুইয়ে তুলে নেয় ক্যারিবীয়রা। ১৪ ফেব্রুয়ারি ফাইনালে তারা ভারতের মুখোমুখি হবে।

টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশ সবক’টি উইকেট হারিয়ে করেছিল ২২৬ রান।  এর জবাবে ক্যারিবীয়দের উড়ন্ত সূচনা এনে দেন গর্ডন পোপ আর টেভিন ইমলাক।  ৫ ওভারেই তারা তুলে নেন ৪৬ রান।  টাইগার বোলারদের ওপর রীতিমত ঝড় বইয়ে দেন গর্ডন পোপ।

ব্যাটিংয়ে দলকে উদ্ধার করা ৬০ রানের পর বল হাতেও অধিনায়ক মেহেদী হাসান মিরাজই প্রথম আঘাত হানেন।  দলীয় ৪৬ রানে টেভিন ইমলাককে এলবিডব্লিউ করেন তিনি।  এরপর দলীয় ৫৬ রানে ঝড় তোলা পোপকে ফেরান বোল্ড করে।  এর আগে অবশ্য শাওন পোপের সহজ ক্যাচ ছেড়ে দেন। ইমলাকের সংগ্রহ ১২ বলে ১৪। আর পোপ ২৫ বলে ৫ চার ও ২ ছক্কায় করেন ৩৮।

এরপর জোড়া আঘাতের ধাক্কা সামলে দলকে সঠিক পথেই রাখেন শিমরন হেটমায়ের ও কেসি কার্টলি। দলীয় ১১৮ রানে ৬২ রানের এই জুটি ভাঙেন স্পিনার সালেহ আহমেদ শাওন। তার বলে সরাসরি বোল্ড হওয়ার আগে কার্টলি করেন ২২ রান।

আর দলীয় ১৪৭ রানে সাজঘরে ফেরেন অর্ধশতক করা শিমরন হেটমায়ের।  মোহাম্মদ সাইফুদ্দিনের বলে সাইফ হাসানের তালুবন্দি হওয়ার আগে তিনি করেন ৬০ রান।  তখনও একপ্রান্ত আগলে রাখেন শেমার স্পিংগার।  ৩৮তম ওভারে অবশ্য জোড়া আঘাত হেনে সালেহ আহমেদ শাওন টাইগার শিবিরে আশা জাগিয়েছিলেন।

দলীয় ১৭৭ রানে প্রথমে জেইউ গুলিকে এলবিডব্লিউ, ১৮১ রানে কেমো পলকে সরাসরি বোল্ড করেন শাওন।   তবে স্পিংগার একাই দলকে টানতে থাকেন।  ২১৭ রানে যখন সাইফুদ্দিনের বলে উইকেটরক্ষক জাকিরের দুর্দান্ত ক্যাচে সাজঘরে ফিরলেন মিশেল ফ্রিউ, ম্যাচ ততক্ষণে ক্যারিবীয়দের মুঠোয়।

শেষ পর্যন্ত রায়ান জনকে নিয়ে ৮ বল বাকি থাকতে বাউন্ডারি মেরে দলের জয় নিশ্চিত করে ফেরেন স্পিংগার।  তিনি ৮৮ বলে ৫ চার এক ছক্কায় দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬২ রানে অপরাজিত থাকেন।  ম্যাচজয়ী ইনিংস খেলে ম্যাচসেরাও হয়েছেন তিনি।

বাংলাদেশের পক্ষে সালেহ আহমেদ শাওন ৩৭ রানে ৩ উইকেট নিয়ে সেরা বোলার।  এছাড়া মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন ও মেহেদী হাসান মিরাজ দুটি উইকেট নেন।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ।  দলনেতা অধিনায়ক মিরাজের অর্ধশতকে ২২৬ রানে গুটিয়ে যায় স্বাগতিকরা।  মিরাজ দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬০ রান করেন।  এছাড়া মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন ৩৬ ও জয়রাজ শেখ ৩৫ রান করেন।

মাত্র ১১৩ রানে ৫ উইকেট হারানোর পর মেহেদি হাসান মিরাজ ও মোহাম্মদ সাইফুদ্দিনের ব্যাটে বাংলাদেশ এই লড়াইয়ের পুঁজি পায়।  ক্যারিবীয়দের পক্ষে কেমো পল ৩টি এবং চেমার হোল্ডার ও শেমার স্প্রিংগার দুটি করে উইকেট তুলে নেন।

এর আগে শ্রীলংকাকে হারিয়ে ফাইনালে উঠে গেছে ভারত।  আজকের বিজয়ী দল হিসেবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ভারতের সঙ্গে খেলবে শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here