বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষে দশ কেন্দ্রে ভোট স্থগিত

0
387

 

vote of ten dis the mail bd

দলীয় প্রতীকে প্রথমবারের মতো আয়োজিত পৌর ভোটের প্রথম দুই ঘণ্টায় সাত পৌরসভার দশটি কেন্দ্র স্থগিত করা হয়েছে নির্ধারিত সময়ের আগেই ব্যালটে সিল মেরে বাক্স ভর্তি করার অভিযোগ আর সংঘর্ষের কারণে।বুধবার সকাল ৮টা থেকে দেশের ২৩৪ পৌরসভায় কড়া নিরাপত্তার মধ্যে এ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলছে।

এর মধ্যে চট্টগ্রামের চন্দনাইশে তিনটি, মাদারীপুরের কালকিনিতে দুটি, কুমিল্লার বরুড়া এবং নড়াইলের কালিয়া পৌরসভার একটি করে কেন্দ্র স্থগিত হয়েছে অনিয়মের কারণে। আর জামালপুরের সরিষাবাড়ী, বরগুনা এবং কুয়াকাটা পৌরসভার একটি করে কেন্দ্র সংঘর্ষের কারণে স্থগিত হয়ে গেছে।

 

চট্টগ্রামে ১০ পৌরসভার মধ্যে চন্দনাইশে সকাল ৮টার আগেই জোর করে ব্যালটে সিল মেরে বাক্স ভর্তির অভিযোগে তিনটি কেন্দ্রে গ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে।

কেন্দ্র তিনটি হল-আফলাতুন চৌধুরী ফোরকানিয়া মাদ্রাসা, গাছবাড়িয়া এ এন হেজ উচ্চ বিদ্যালয় এবং উত্তর গাছবাড়িয়া বদুরপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

এর মধ্যে প্রথম দুটি কেন্দ্রে প্রায় ৯০০ ব্যালটে সিল মারা হয়েছিল বলে নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন সকালে পটিয়ার আল্লাই ওখারা ফোরকানিয়া মাদ্রাসা ভোটকেন্দ্রে পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের বলেন, “প্রকাশ্যে সিল মেরে বাক্স ব্যালট ভরার কারণে রিটার্নিং কর্মকর্তা নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে দুটি কেন্দ্র বন্ধ করে দিয়েছেন।”

পরে সকাল ১০টার দিকে একই কারণে উত্তর গাছবাড়িয়া বদুরপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয় বলে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা আবদুল লতিফ জানান।

 

আগেই সিল মেরে বাক্স ভরার ঘটনায় মাদারীপুরের কালকিনি পৌরসভার দুটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত হয়েছে।

কর্মকর্তা মো. আলাউদ্দিন জানান, কাষ্ঠগড় ও দক্ষিণ জোনারদণ্ডি কেন্দ্রে কয়েকটি ব্যালট বাক্স পাওয়া যায় যেগুলোতে আগে সিল দিয়ে ব্যালট পেপার ঢুকিয়ে রাখা হয়েছিল। সকালে রিটার্নিং কর্মকর্তা ব্যালটসহ বাক্সগুলো জব্দ করেন এবং কেন্দ্র দুটিতে ভোট গ্রহণ স্থগিত করেন।

 

ভোট শুরুর আগে ব্যালটে সিল দেওয়ায় ভোট স্থগিত হয়েছে কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার লতিফপুর কেন্দ্রে। বরুড়ার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) লুৎফুন্নাহার নাজিম জানান, সকাল ৭টার দিকে একদল যুবক কেন্দ্রে গিয়ে ব্যালট পেপার ছিনিয়ে নিয়ে সিল দেওয়া শুরু করলে আইশৃঙ্খলা বাহিনী ও কেন্দ্রে থাকা কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ধাওয়ায় তারা পালিয়ে যায়।

পরে তিনি গিয়ে সিল দেওয়া ১২শ ব্যালট পেপার উদ্ধার করে সেগুলো বাতিল করেন এবং ওই কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ স্থগিত করেন বলে জানান ইউএনও।

 

ভোটে অনিয়মের অভিযোগে নড়াইলের কালিয়া পৌরসভার পূর্ব কালিয়া সরকারি মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ সাময়িকভাবে স্থগিত করা হয়েছে। ওই কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার হাসানুর জামান জানান, ওই কেন্দ্রে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর পক্ষে ব্যালটে সিল মেরে বাক্স ভর্তি করার সময় একজনকে আটক করার পর ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়।

জালিয়াতির অভিযোগে মোতাসেফ বিল্লাহ (২৫) নামের এক আওয়ামী লীগ কর্মীকে ছয় মাসের সাজা দিয়েছেন সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট হারুন আর রশিদ।

 

জামালপুর জেলার ছয় পৌরসভার মধ্যে সরিষাবাড়ীর বাউসি বাঙ্গালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনা তৈরি হওয়ায় ওই কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে। জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোশারফ হোসেন  বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

 

বরগুনা পৌরসভায় কেন্দ্র দখল করে আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থীর পক্ষে সিল মারার সময় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষের পর গগণ মেমোরিয়াল মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে। রিটার্নিং অফিসার মো. আবদুল্লাহ জানিয়েছেন, সংঘর্ষের ঘটনায় নির্বাচনী কর্মকর্তাসহ অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন।

তিনি বলেন, “সকালে ভোট শুরুর পর নৌকার প্রার্থী কামরুল আহসান মহারাজের লোকজন গগন মেমোরিয়াল মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র দখল করে সিল মারা শুরু করে। অন্য মেয়র প্রার্থীর সমর্থকরা বাধা দিলে গণ্ডগোল শুরু হয়।”

 

আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টি ও বিএনপির মেয়র প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় কুয়াকাটা পৌরসভার পানজুপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে। রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. নাজমুল কবির জানান, সকালে ভোট শুরুর দুই ঘণ্টার মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হলে সকাল ১০টার কেন্দ্রটি স্থগিত করা হয়।

পরিস্থিতি সামাল দিতে পুলিশকে ২৫ রাউন্ড গুলি ছুড়তে হয়েছে বলে পটুয়ালী সদর থানার ওসি কে এম তারিকুল ইসলাম জানিয়েছেন, আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here