অতিরিক্ত যাত্রী উঠলেই সিগন্যাল দেবে লঞ্চে

0
351

লঞ্চ ডুবিতে শত শত মানুষের মৃত্যুর ট্র্যাজেডি সবারই জানা। অতিরিক্ত যাত্রী বহন ও লঞ্চের ত্রুটির কারণে এসব দুর্ঘটনা ঘটছে বলে বিশেষজ্ঞ মত।  এ ধরনের দুর্ঘটনা এড়াতে লঞ্চ বা জাহাজে অতিরিক্ত লোড করলেই অটো সিগন্যাল পাঠানোর একটি ডিভাইস আবিষ্কার করেছেন এক শিক্ষার্থী।

রাজধানীর ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ভবনে ‘স্কিলস কম্পিটিশন-২০১৫’র চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় এমনই প্রযুক্তি নিয়ে এসেছেন রংপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থী সুলতানুর রহমান।

signal for over load in lounch the mail bd

দেশের নৌ দুর্ঘটনাগুলোর ৩৮ শতাংশই অতিরিক্ত লোডের কারণে ঘটে, জানিয়ে সুলতানুর জানান, লঞ্চ বা জাহাজ কর্তৃপক্ষ ধারণক্ষমতার অতিরিক্ত বহন করার চেষ্টা করলে ডিভাইসটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে রেড সিগন্যাল দেবে ও ইঞ্জিন চালু করতে দেবে না।

‘শিপ সেভিং ডিভাইস’ তথা জাহাজ রক্ষাকারী ডিভাইসটি নৌ-যানে যুক্ত করলে, লোড স্বাভাবিক হলে গ্রিন সিগন্যাল দিয়ে ইঞ্জিন চালু করতে দেবে। ডিভাইসের মাধ্যমে জাহাজের লোডের পরিমাণও প্রদর্শিত হবে।’

ডিভাইসটির সবচেয়ে বড় সুবিধা হলো, যদি কেউ ডিভাইসটি ডি-অ্যাক্টিভ করেন বা করার চেষ্টা করেন, তবে সঙ্গে সঙ্গে তার অজান্তে জাহাজ পরিচালনা কর্তৃপক্ষের কাছে মোবাইলের মাধ্যমে একটি এসএমএস যাবে। এতে কর্তৃপক্ষ জানতে পারবে, ডিভাইসটি ডি-অ্যাক্টিভ করা হচ্ছে বা হয়েছে।

‘পিনাক-৬’ নাম দিয়ে প্রদর্শনীতে তার আবিষ্কারটি পরীক্ষামূলকভাবে দর্শনার্থীদের দেখাচ্ছেন সুলতানুর।

নৌ-যান দুর্ঘটনায় যাত্রী নিহত হওয়ার সম্ভাবনা শতভাগ জানিয়ে সুলতানুর রহমান বলেন, প্রাণঘাতী ও হৃদয় বিদারক দুর্ঘটনা থেকে মুক্তি পেতে ও মূল্যবান জীবনগুলো রক্ষা করতে এ ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা।

ডিভাইসটি বৃহৎ পরিসরে নৌযানগুলোতে ব্যবহার হলে দুর্ঘটনা শূন্যের কোঠায় নিয়ে আসা যাবে বলে দাবি রংপুর পলিটেকনিকের ইলেক্ট্রো মেডিকেল বিভাগের ষষ্ঠ পর্বের ছাত্র সুলতানুর রহমানের।

দেশের পলিটেকনিক ও বিভিন্ন কারিগরি প্রতিষ্ঠান থেকে স্বল্প খরচে বিভিন্ন ধরনের প্রযুক্তি নিয়ে এসেছেন তারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here