লাহোরে গেইলের সাথী মুস্তাফিজ, তামিম খেলবে আফ্রিদির পেশাওয়ারে

0
1696

পাকিস্তান সুপার লিগ (পিএসএল) টি-টোয়েন্টিতে মুস্তাফিজুর রহমানকে দলে নিয়েছে লাহোর কালান্দার্স। আর তামিম ইকবালকে নিয়েছে পেশাওয়ার জালমি। লাহোরের দলটির আইকন ক্রিকেটার ক্রিস গেইল, পেশাওয়ারের শহীদ আফ্রিদি।

tamim mustafiz the mail bd

কদিন আগে বিপিএলে মুখোমুখি হয়েছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান গেইল ও বিশ্ব ক্রিকেটের নতুন সেনসেশন মুস্তাফিজ। দুজনের প্রথম দেখায় দারুণ এক কাটারে গেইলকে প্রথম বলেই বোল্ড করেছিলেন মুস্তাফিজ।

এর আগে পিএসএলের সবচেয়ে দামি ক্যাটেগরি, ‘প্লাটিনাম’ থেকে সাকিব আল হাসানকে দলে নিয়েছিল করাচি কিংস। মুস্তাফিজ আর তামিম ছিলেন ‘গোল্ড’ ক্যাটেগরিতে।

এর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সিপিএল, শ্রীলঙ্কার এসএলপিএল, ইংল্যান্ড ও নিউ জিল্যান্ডের ঘরোয়া টি-টোয়েন্টিতে খেলেছেন তামিম। আইপিএলে দলে থাকলেও খেলা হয়নি। আর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রাখার বছরেই দেশের বাইরের লিগে খেলার সুযোগ পেয়ে গেলেন মুস্তাফিজ।

‘প্লাটিনাম’ ক্যাটেগরিতে পারিশ্রামিক ১ লাখ ৪০ হাজার ডলার হলেও পাঁচ দলের পাঁচ ‘আইকন’ ক্রিকেটার, আফ্রিদি, মালিক, গেইল, পিটারসেন ও ওয়াটসন পাবেন ২ লাখ ডলার করে।

‘গোল্ড’ ক্যাটেগরির ক্রিকেটারদের পারিশ্রামিক ৫০ হাজার ডলার; ‘সিলভার’ ক্যাটেগরিতে ২৫ হাজার।

৫টি ক্যাটেগরিতে ১৩৮ জন পাকিস্তানি ক্রিকেটারসহ মোট ৩১০ জন ক্রিকেটার আছেন পিএসএলের প্লেয়ার্স ড্রাফটে। তবে সুযোগ পাবেন সর্বোচ্চ ১০০ জন ক্রিকেটার।

সোমবার ড্রাফটের প্রথম দিনে ৫ দল নিয়েছে ৯ জন করে ক্রিকেটার। মঙ্গলবার দ্বিতীয় দিনে ‘সিলভার’ ক্যাটেগরি থেকে ৫ জন করে এবং উঠতি ক্রিকেটার ক্যাটেগরি থেকে ২ জন করে ক্রিকেটার নিতে হবে সব দলকেই। এরপর বাড়তি নেওয়া যাবে আর ৪ জন করে। অর্থাৎ, সব দলকেই অন্তত ১৬ জন ক্রিকেটার নিতে হবে। আর সর্বোচ্চ নেওয়া যাবে ২০ জন। ১৬ জনের বাইরে অতিরিক্তি ৪ জনের মধ্যে বিদেশি থাকতে পারবে ১ জনই।

ড্রাফটে ‘গোল্ড’ ক্যাটেগরিতে বাংলাদেশের আরও আছেন মুশফিকুর রহিম, সৌম্য সরকার ও শাহরিয়ার নাফিস। ‘সিলভার’ ক্যাটেগরিতে আছেন মাহমুদউল্লাহ, এনামুল হক, মুমিনুল হক ও ইমরুল কায়েস।

বেশ কয়েক বছর ধরে পরিকল্পনার পর অবশেষে আগামী বছর শুরু হতে যাচ্ছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক এই টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট। আগামী ৪ থেকে ২৫ ফেব্রুয়ারি সংযুক্ত আরব আমিরাতে হবে এই টুর্নামেন্ট।

ওই সময় বাংলাদেশের কোনো খেলা নেই। পুরো টুর্নামেন্টই তাই খেলতে পারবেন সাকিব-মুস্তাফিজ-তামিম। এশিয়া কাপ ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে ম্যাচ অনুশীলনটাও হয়ে যাবে ভালোমতো।

প্রথম দিন শেষে কে কোন দলে:

ইসলামাবাদ ইউনাইটেড: শেন ওয়াটসন, আন্দ্রে রাসেল, মিবাহ-উল-হক, স্যামুয়েল বদ্রি, মোহাম্মদ ইরফান, ব্র্যাড হাডিন, শার্জিল খান, মোহাম্মদ সামি, খালিদ লতিফ।

করাচি কিংস: শোয়েব মালিক, সাকিব আল হাসান, সোহেল তানভির, ইমাদ ওয়াসিম, রবি বোপারা, লেন্ডল সিমন্স, মোহাম্মদ আমির, বিলাওয়াল ভাট্টি, জেমস ভিন্স।

পেশাওয়ার জালমি: শহীদ আফ্রিদি, ওয়াহাব রিয়াজ, ড্যারেন স্যামি, কামরান আকমল, মোহাম্মদ হাফিজ, ক্রিস জর্ডান, তামিম ইকবাল, জুনাইদ খান, জিম অ্যালেনবাই।

কোয়েটা কালান্দার্স: কেভিন পিটারসেন, সরফরাজ আহমেদ, আহমেদ শেহজাদ, আনোয়ার আলি, জেসন হোল্ডার, লুক রাইট, জুলফিকার বাবর, উমর গুল, এল্টন চিগুম্বুরা।

লাহোর কালান্দার্স: ক্রিস গেইল, ডোয়াইন ব্রাভো, উমর আকমল, মোহাম্মদ রিজওয়ান, ইয়াসির শাহ, সোহেব মাকসুদ, মুস্তাফিজুর রহমান, কেভন কুপার, ক্যামেরন ডেলপোর্ট।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here